Home খেলা

দ্বিতীয় টেস্টের জন্য প্রস্তুত নই: তামিম

জিম্ববুয়ের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট হারের পরই গুঞ্জন বেরিয়েছিল। দলের এমন খারাপ অবস্থা মানতে পারছেন না বাংলাদেশ বাঁ-হাতি ওপেনার তামিম ইকবাল। আর তাই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঢাকায় দ্বিতীয় টেস্টে খেলবেন তিনি। কিন্তু তামিম এবার নিশ্চিত করলেন খেলবেন না তিনি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলার জন্য প্রস্তুত নন তিনি।

তামিম এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে শ্রীলংকার বিপক্ষে কজ্বির ইনজুরিতে পড়েন। এরপর ঘরের মাঠে নভেম্বরে শুরু হওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে ফেলার কথা আছে তার। কিন্তু প্রথম টেস্টে ১৫১ রানের বড় ব্যবধানে হারের পর বিসিবি’র নির্বাচকরা কোচের সঙ্গে জরুরি সভা ডাকেন। বাংলাদেশ দলের ফিজিওকে দিতে বলা হয় তামিমের উন্নতির সর্বশেষ রিপোর্ট। ফিজিওর এমন কথায় দুইয়ে দুইয়ে চার মিলিয়ে ধরে নেওয়া হয় যে, তামিম ফিরছেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে।

তবে তামিম নিশ্চিত করছেন, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলার খুব কম সুযোগ আছে তার। কারণ তিনি মনে করছেন, এখনই খেলতে পারবেন না তিনি। তামিম বলেন, ‘আমি স্পিনের বিপক্ষে কেবল ব্যাট করা শুরু করেছি। কোন ব্যথা আামি এখন অনুভব করছি না। কিন্তু হাত এখনও বেশ দুর্বল। এছাড়া শট খেলতে গেলে সামান্য ব্যথা পাচ্ছি।’

তার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে খেলার বিষয়ে তামিম বলেন, ‘খেলার সম্ভবনা খুবই কম। আমার মনে হয়না যে আমি তা পারবো। আমি এখনো প্রস্তুত না। খেলতে চাইলেও ফিজিও আমাকে অনুমতি দেবেন বলে মনে করি না। ব্যাটিং অনুশীলন শুরু করেছি তিন দিন হলো। আর অনুশীলন বলতে সেমি-স্পিন খেলা। আমি যদি পুরো দমে নেটে ব্যাটিং অনুশীলনও করি তবে খেলার জন্য ফিট ঘোষণা করা এখন দলের জন্য শোভন দেখাবে না। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচের আগে ফিরতে পারবো আশা করছি।’

তামিম তার অনুশীলনের ধরণ এবং দ্বিতীয় টেস্টে খেলতে না পারার কারণ হিসেবে বলেন, ‘নেটে এখনও পুরোপুরি অনুশীলন করতে পারিনি। এখন স্পিন খেলা আর মাঠে গিয়ে ১৩০-১৪০ গতির বল খেলা এক কথা নয়। সব কিছু ঠিকঠাক মতো এগোচ্ছে। আরও তিন দিন পরে আমি পুরোপুরি নেট অনুশীলন শুরু করবো। তারপর বলতে পারবো আমি কোথায় আছি।’ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলার ব্যাপারে তামিম জানান, ১৬-১৭ নভেম্বরের দিকে আমার অবস্থা কোন পর্যায়ে আছে তার ওপর নির্ভর করছে আমার খেলা।’

তামিম খেলতে না পারলেও যারা দলে আছেন তারা দ্বিতীয় টেস্টে ঘুরে দাঁড়াবেন বলে আশা করছেন তামিম। তিনি বলেন, ‘তারা ১০০ ভাগ ঘুরে দাঁড়াবে। দল এবং আমি মনে করি তারা সেরা খেলা দেখাতে পারেনি। তারা যা খেলেছে তার থেকে ভালো দল আমরা। গেল পাঁচ বছরের থেকে টেস্টে এখন অনেক ভালো দল আমরা। তবে আমরা টেস্টে যেমন উন্নতি আশা করেছিলাম যেভাবে তা এগোচ্ছে না।’