Home খেলা

সিনিয়রদের অভিজ্ঞতায় এগিয়ে থাকবে বাংলাদেশ: সৌম্য

সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সে শ্রীলঙ্কার চেয়ে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। বিশেষ করে সিনিয়র ক্রিকেটারদের অভিজ্ঞতার কারণেই এগিয়ে থাকবে টাইগাররা।

এমনটাই মনে করেন ওপেনার সৌম্য সরকার। দুবাইয়ে আগে খেলার অভিজ্ঞতা না থাকলেও সেটি সমস্যা হবেনা বলেই মনে করেন তিনি। তবে ম্যাচ জিততে হলে টপঅর্ডারকে রাখতে হবে মূল ভূমিকা। এমনটাই জানিয়েছেন সৌম্য।

প্রশ্নটা ছিল, শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশ ম্যাচে কে ফেবারিট? সৌম্য সরকার সোজা ব্যাটে খেলতে পারলেন না। খানিকটা দ্বিধান্বিত, উত্তর দিতে সময় নিলেন অনেকক্ষণ।

আইসিসির সবশেষ র‌্যাংকিং বলছে, শ্রীলঙ্কার চেয়ে একধাপ এগিয়ে বাংলাদেশ। পয়েন্ট হিসেবে ব্যবধানটা ১২। তবে গৌরবময় অনিশ্চয়তার ক্রিকেট মানেনা র‌্যাংকিং-পরিসংখ্যান, মানেনা হিসেব-নিকেশও।

তিনি বলেন, এখনকার যে কন্ডিশন তাতে আমরাই এগিয়ে আছি। আমরা এখন আমাদের সেরাটা খেলতে পারলেই জয়ী হতে পারব।

তবে একটা দিক থেকে স্পষ্টতই এগিয়ে টিম বাংলাদেশ। মাশরাফী-তামিম-সাকিবদের মতো অভিজ্ঞদের সমন্বয় যে আছে লাল সবুজ তাঁবুতে! বর্তমান শ্রীলঙ্কা এদিক থেকে বেশ পিছিয়ে বলতেই হবে। অভিজ্ঞতার দিক থেকে বাংলাদেশকে তাই এগিয়েই রাখছেন ৩২ ওয়ানডে খেলা সৌম্য সরকার।

সৌম্য সরকার বললেন, আমাদের মতই উইকেট, কিছুদিন আগেই আমাদের প্লেয়াররা খেলেছেন, নির্দিষ্ট কোন একজন নয় সবাইকে সমান চোখে দেখেই আমরা যদি এটাক করতে পারি তাহলে ভালো হবে।

টাইগার শিবিরে দীর্ঘদিন থাকার দরুন সৌম্য জানেন, শ্রীলঙ্কার কোন খেলোয়াড়কে আলাদা টার্গেট করে নামবেনা বাংলাদেশ। জানালেন, দুবাইয়ের কন্ডিশনও বাধা হবেনা। তবে জিততে হলে সবার কাছে চাইলেন টোটাল ক্রিকেটটা।