Home খেলা

এবার ছেলেকে দলে নিয়ে বিতর্কে ইনজামাম

অনেক প্রতিভাবান খেলোয়ারকে বাদ রেখে ভাতিজা ইমাম-উল-হককে জাতীয় দলে জায়গা করে দেওয়ায় স্বজনপ্রীতির অভিযোগটা আগেও উঠেছিল পাকিস্তানের বর্তমান প্রধান নির্বাচক ইনজামাম-উল হকের বিরুদ্ধে। এবারের অভিযোগটা আরও গুরুতর। এবার সরাসরি নিজের ছেলের পক্ষে সুপারিশের অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে!

যদিও ইতিহাসের তৃতীয় অল্প বয়সী ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেক ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ইমাম দেখিয়ে দিলেছিলেন চাচা ইনজামাম এতটুকু ভুল করেননি।

ভাতিজা সাফল্য পেলেও এবার ছেলের সুযোগ পাওয়া নিয়ে কাঠগড়ায় পাকিস্তানের প্রধান নির্বাচক ও সাবেক ব্যাটিং কাণ্ডারি ইনজামাম। মুলতানের সুলতানের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুলটা তুলেছেন নিজ দেশের সাবেক স্পিনগ্রেট আবদুল কাদির।

তবে সমালোচনার মুখে ইনজি পাশে পাচ্ছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান এহসান মানিকে। সাবেক তারকার উপর পূর্ণ আস্থা রয়েছে বলেই জানিয়েছেন পিসিবি বস।

এমনকি ইনজামামের সতীর্থ এবং বন্ধু মোহাম্মদ ইউসুফও তাকে সমর্থন জানিয়েছেন এ ইস্যুতে।

বৃহস্পতিবার মানির সঙ্গে দেখা করেছেন ইনজামাম এবং জুনিয়র দলের নির্বাচক বাসিত আলী। বলেছেন, পাকিস্তান যুব দলেই সুযোগ পেয়েছেন ইনজির ছেলে।

যদিও কাদিরের অভিযোগ, ইনজামামের সমর্থনেই জাতীয় যুব দলে সুযোগ পেয়েছেন তার ছেলে। কাদিরের দাবি, বাসিত তাকে বলেছেন, ছেলে ইবতিসাম-উল-হককে দলে নিতে ইনজামামই বাসিতকে বলেছেন। যদিও কাদিরের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ইনজি-বাসিত উভয়েই।

বৃহস্পতিবার ইনজি-বাসিতের সঙ্গে বৈঠকের পর এক প্রেস বিবৃতিতে দুই নির্বাচনের উপর আস্থা রয়েছে জানিয়ে পিসিবি মুখপাত্র বলেছেন, ‘দুই নির্বাচকের বিরুদ্ধে জল্পনা ছড়ানোয় হতাশ মানি। তবে দুই নির্বাচকের ওপর পূর্ণ আস্থা রয়েছে তারা।’

মানির সঙ্গে সাক্ষাতের আগে এক ভিডিও বিবৃতিতে ইনজামাম পিসিবি’র উদ্দেশ্য করে বলেন, চেয়ারম্যান এহসান মানি এই ব্যাপারটি তদন্ত করে অপরাধ পেলে ব্যবস্থা নিন।

বুধবার এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘আমি এই মিথ্যা এবং বিদ্বেষপরায়ণ দাবি দৃঢ়ভাবে প্রত্যাখ্যান করছি। রেকর্ড অনুযায়ী এই বিষয় নিয়ে জুনিয়র নির্বাচন কমিটির কাছে কেউই যায়নি এবং এর মধ্যে কোনো সত্যতা নেই। আমি বিষয়টি খুবই গুরুত্ব সহকারে নিয়েছি এবং আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) এ বিষয়ে একটি খোলা তদন্তের জন্য পিসিবি সভাপতিকে অনুরোধ করছি।’

ইনজির মতো একই রকম বার্তা দেন বাসিতও। বলেন, ‘যারা এই ধরনের মিথ্যা খবর ছড়ায় তাদের শাস্তি দিতে আমি পিসিবি চেয়ারম্যানকে বিষয়টি তদন্ত করতে বলছি।