Home খেলা

মাঠে ফিরেই আজ অবিশ্বাস্য ঝলক দেখালেন আশরাফুল

মোহাম্মদ আশরাফুল, বাংলাদেশ ক্রিকেট অঙ্গনের একজন উজ্জ্বল নক্ষত্র ছিলেন তিনি। তবে নিজের সামান্য একটু ভুলে নিভে জায় সেই আশার আলো। জীবন থেকে হারিয়ে ফেলেন ৫ টি বছর।

অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহ থেকে মাঠে গড়াতে যাওয়া জাতীয় ক্রিকেট লীগের ক্রিকেটারদের বিপ টেস্ট বুধবার থেকে শুরু হয়েছে। দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রথম বারের মতো আয়োজিত বিপ টেস্টে অবিশ্বাস্য সফল ছিলেন নিষেধাজ্ঞা থেকে ফেরা ঢাকা মেট্রো দলের ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুল।

পরীক্ষায় ১২তে ১১.৪ পয়েন্ট পেয়েছেন জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক। তবে তিনি একা নন, আরও দুই জন ক্রিকেটার সৈকত আলি এবং শাফাক আল জাবিরও পেয়েছেন ১১.৪ পয়েন্ট। আর ১১.২ পয়েন্ট পেয়েছেন জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার শামসুর রহমান শুভ। এছাড়া ২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জাতীয় দলের হয়ে খেলা টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান মার্শাল আইয়ুব পেয়েছেন ১০.৭।

‘সৈকত আলি ও জাবির, উইকেট কিপার… ওরা দুইজন ১১.৪ এ বিপ টেস্ট দিয়েছে এবং আমিও একই স্কোর করেছি। শামসুর রহমান শুভ ১১.২, মার্শাল আইয়ুব ১০.৭। এদিকে বিপ টেস্টে থাকা আশরাফুল জানিয়েছেন তাঁর সবার উপরে থাকার মন্ত্র। বলেছেন, জাতীয় দলে থাকাকালীন সময়ও সেরা পাঁচে থাকতেন তিনি। তবে এর জন্য মানসিকভাবে শক্তিশালী হতে হবে।

জানিয়েছেন, বিভিন্ন ফিজিক্যাল অনুশীলনও করতে হবে এর জন্য। বুধবার বিপ টেস্ট শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে আশরাফুল ব্যক্ত করেন, ‘ঢাকা মেট্রোতে আমরা ৮-৯ জন ক্রিকেটার আছি যারা এর আগে বাংলাদেশ দলে খেলেছি। শুধু এবার না, ছোট বেলা থেকেই আমার ফিটনেস সেরা পাঁচে থাকত, বাংলাদেশ দলে যখন ছিলাম। মানসিকভাবে আপনি শক্ত হলে এটা সম্ভব।

‘আর ফিজিক্যাল কাজও করতে হবে এর জন্য। আমি কাজও করেছি এবং মানসিকভাবে শক্তও ছিলাম। আমি যেই স্বপ্নটা দেখেছি, সেটা বিশ্বাস করেছি। তখন আসলে সব সম্ভব হয়।’