শিল্পী-নির্মাতারা ‘জাস্টিস ফর পরীমনি’ হ্যাশট্যাগে সোচ্চার

প্রকাশিত: জুন ১৪, ২০২১ / ০৭:০৯অপরাহ্ণ
শিল্পী-নির্মাতারা ‘জাস্টিস ফর পরীমনি’ হ্যাশট্যাগে সোচ্চার

ঢালিউডের জনপ্রিয় নায়িকা পরীমনির ধ’ র্ষ’ণ ও হ’ ত্যাচেষ্টার ঘটনায় বিচারের দাবিতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ‘জাস্টিস ফর পরীমনি’ হ্যাশট্যাগে সোচ্চার হয়েছেন বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ও টিভি নাটকের অভিনয়শিল্পী-নির্মাতারা।

জয়া আহসান, ভাবনা, গিয়াসউদ্দিন সেলিম, নাবিলাসহ বেশ কয়েকজন অভিনয়শিল্পী ও নির্মাতা ফেসবুকে ‘জাস্টিস ফর পরীমনি’ হ্যাশট্যাগ দিয়ে সহকর্মীর উপর হওয়া অন্যায়ের প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান এই ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় তার ফেসবুকে একটি দীর্ঘ পোস্ট দিয়েছেন। ওই পোস্টে জয়া লিখেছেন, পরীমনির খবরটি শোনার পর থেকে বেদনা ও ধিক্কারে মনটা ভরে উঠেছে। আমি কষ্ট পাচ্ছি মানুষ হিসেবে, মেয়ে হিসেবে, অভিনয়–জগতের একজন সদস্য হিসেবে।

ওই পোস্টে জয়া আরও লেখেন, একবিংশ শতকের অনেকটা পথ পার হয়ে এসে এখনো মেয়েদের এমন লাঞ্ছনা দেখতে হবে? কোনো মানুষ, কোনো মেয়ের সঙ্গে এমন আচরণ করার মন, মানসিকতা বা দুঃসাহস কোত্থেকে আসে? যে চলচ্চিত্রশিল্পকে র’ক্তে–ঘামে আমরা তিল তিল করে গড়ে তুলছি, তা এতই নাজুক, এতই খেলো?

পরীমনির ওপর হওয়া অন্যায়ের শেষ পর্যন্ত দেখার আশাবাদ জানিয়ে জয়া লিখেছেন,এ ঘটনা আমরা তলা পর্যন্ত বুঝতে চাই। আমরা দেখতে চাই, এমন দু’র্বৃ’ত্তপনার বিচার হয়েছে। দেখতে চাই, কোনো মেয়ে—তা সে যে–ই হোক—তার সঙ্গে এমন আচরণের অবসান হয়েছে।

এদিকে, ‘স্বপ্নজাল’ চলচ্চিত্রের নির্মাতা গিয়াসউদ্দিন সেলিম এক ভিডিওবার্তায় এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন।ওই ভিডিওতে তিনি বলেছেন,সাম্প্রতিক সময়ে দেখছি, টাকার গরমের কাছে আইন ও আদেশ গলে গলে যাচ্ছে। আমরা উন্নয়নের মহাসড়কে উঠেছি এখনও যদি আইনশৃঙ্খলা ঠিক না করি তাহলে পুরো জাতি তলিয়ে যাবে। আমি এর সঠিক বিচার চাই।

অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনা তার ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন,একজন নারী হিসেবে,একজন সহকর্মী হিসেবে পরীর এই কান্না নিতে ভীষণ কষ্ট হচ্ছে। সম্মান একটা পিঁপড়ারও আছে। পরীমনি একজন নায়িকা, বাংলা সিনেমার নায়িকা । তো! তার সাথে যা খুশি তাই করা যাবে। এই পিতৃতান্ত্রিক সমাজে যত বড় হচ্ছি তত নিজেকে অতি ক্ষুদ্র ভাবে দেখতে পাচ্ছি।

ওই পোস্টে ভাবনা আরও লিখেছেন, একজন নারী সে ঘরের বউ হোক, পার্লারে কাজ করা মেয়ে হোক, বিশাল কাচের রুমে বসে অফিস করা মেয়ে হোক, গার্মেন্টস কর্মী হোক, ডাক্তার হোক, লেখক হোক আর যদি নায়িকা হয় তাহলে তো কথাই নাই। সবাইকে অসম্মান সহ্য করতে হয়। পরীর পাশে আছি। পরী তুমি ভাঙবে না প্লিজ।

অভিনেত্রী মিশু চৌধুরী ‘জাস্টিস ফর পরীমনি’ হ্যাশট্যাগে এক ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, পরীমনি পাশে আছি। এই মুহূর্তে আপনাকে আরও শক্ত হতে হবে। বিচার আপনিই পাবেন। আপনি নিজেই আপনার মনোবল। দোয়া করি এই কঠিন সময় যেন খুব তাড়াতাড়ি পার হয়।

এই ঘটনার প্রতিবাদে টিভি অভিনেত্রী ঊর্মিলা শ্রবান্তী কর লিখেছেন, আমরা কোথায় আছি! এ কোন দেশে আমরা বাস করছি! স্বনামধন্য চিত্রনায়িকা পরীমনির সাথে যে অন্যায় হয়েছে, তার তীব্র প্রতিবাদ জানাই ও দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করছি। নারীর প্রতি কোনো সহিংসতা ও অত্যাচার সহ্য করব না – মানব না।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘মা’ সম্বোধন করে রোববার রাতে ফেসবুকে ঢালিউডের আলোচিত নায়িকা পরীমনি একটি স্ট্যাটাসে অভিযোগ করেন, সাভারের এক ক্লাবে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন তিনি। তাকে ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে।

স্ট্যাটাসের পর রাত সাড়ে ১০টায় গণমাধ্যম কর্মীরা পরীমনির গুলশানের বাসায় গেলে এ নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।

সেখানে তিনি অভিযুক্তের নাম প্রকাশ করেন। বলেন, ঘটনার মূল হোতা নাসির ইউ মাহমুদ (নাসিরউদ্দিন আহমেদ) নামে এক ব্যক্তি। ঢাকা বোট ক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য (বিনোদন ও সংস্কৃতি)।এরপর তিনি এই অভিযোগে সোমবার সাভার থানায় উত্তরা ক্লাবের সাবেক সভাপতি নাসির ইউ মাহমুদসহ ছয়জনকে আসামি করে মামলা করেন।

পরীমনির অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার দুপুরে উত্তরা ১ নম্বর সেক্টরের ১২ নম্বর রোডে বাসা থেকে নাসির উদ্দিনকে গ্রে’ফ’তার করে পুলিশ।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন