পরীমনির সেই ঘটনার বিষয়ে জানতেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান

প্রকাশিত: জুন ১৪, ২০২১ / ১০:৫৯পূর্বাহ্ণ
পরীমনির সেই ঘটনার বিষয়ে জানতেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মা সম্বোধন করে ফেসবুকে এক দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিয়েছেন ঢালিউডের আলোচিত নায়িকা পরীমনি। স্ট্যাটাসে প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার চাইলেন এ চিত্রনায়িকা। যেখানে তিনি অভিযোগ করেছেন, তাকে ধ;;র্ষ;;ণ ও এবং হ;ত্যা;র; ;চেষ্টা ক;রা হয়েছে। তি;নি ;নির্যা;তি;;ত হয়েছেন।

তবে স্ট্যাটাসের কোথায় অভিযুক্তের নাম লেখেননি তিনি। রোববার সন্ধ্যা ৭টা ৫৩ মিনিটে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পোস্টে এসব অভিযোগ করেছেন পরীমনি, যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় চলছে।

পরীমনি জানিয়েছেন, গত চার দিন ধরে থানা থেকে শুরু করে চলচ্চিত্র বন্ধুদের কাউকে পাশে পাননি তিনি। চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতেও অভিযোগ নিয়ে গেছেন। কিন্তু তিনি কোনো প্রতি;কার পাননি। যাদের;কে পেয়ে;ছেন সবাই বিস্তারিত ঘটনা জেনে ‘দেখছি’ বলে চু;প হয়ে গেছে। তাই বাধ্য হয়ে সামাজিক ;যোগা;যোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়েছেন।

পরীমনির এমন অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক চিত্রনায়ক জায়েদ খানও। এক গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘পরীমনি আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার বিচার চান তিনি।’তবে অনা;কাঙ্ক্ষিত ঘটনায় পরীমনি কতটা ভুক্তো;ভোগী হয়েছেন বা ঘটনা;টি কি সে বিষয়ে কিছু জানাননি জায়েদ খান।

তবে এটাই স্পষ্ট যে, জায়েদ খানসহ শিল্পী সমিতির কেউ কেউ ঘটনার প্রসঙ্গে অবগত আছেন। কী ছিল সেই ঘটনা আর অভিযুক্ত কে বা কারা – সেই বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে অচিরেই প্রকাশ করবেন বলে জানিয়েছেন পরীমনি।

গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে মুঠোফোনে পরীমনি কাঁদতে কাঁদতে জানান, তার স্ট্যাটাসটি সত্য। অনেক ভেবেচিন্তেই এই স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তার সঙ্গে অনেক খারাপ কিছু ঘটেছে যে স্ট্যাটাস দিতে বাধ্য হয়েছেন।

পরীমনি বলেন, ‘আপনাদের জানানো ছাড়া আর কোনো উপায় নেই। গত কদিনে আমি শিল্পী সমিতি, থানা সব জায়গায় গিয়েছি। শেষ পর্যন্ত ফেসবুকে পোস্ট দিতে বাধ্য হয়েছি।সূত্র” যুগান্তর

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন