শেখ জামাল জয় পেলো শাকিলের বিধ্বংসী বোলিংয়ে

প্রকাশিত: জুন ১০, ২০২১ / ০৮:১৯অপরাহ্ণ
শেখ জামাল জয় পেলো শাকিলের বিধ্বংসী বোলিংয়ে

চলতি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে জয়ের ধারায় ফিরেছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ও খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতি। বাঁ-হাতি পেসার সালাউদ্দিন শাকিলের বিধ্বংসী বোলিংয়ে শেখ জামাল ৬ উইকেটে হারিয়েছে পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবকে।

খেলাঘর বৃষ্টি আইনে ৫ রানে হারিয়েছে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে। ৬ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পঞ্চম স্থানে শেখ জামাল। আর ৬ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের অষ্টম স্থানে খেলাঘর।

সাভারের বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে টস জিতে প্রথমে পারটেক্সকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। ব্যাটিং শুরু করে ৫ ওভারে ১ উইকেটে ৩০ রান তুলে পারটেক্স। এরপর আক্রমণে এসে ষষ্ঠ ওভারের প্রথম বলেই উইকেট তুলে নেন শেখ জামালের শাকিল।

সেখানেই থেমে যাননি তিনি। এরপর নেন আরও ৪ উইকেট। সাথে স্পিনার ইলিয়াস সানির ঘুর্ণিতে পড়ে ১৯.৩ ওভারে ১০৪ রানে গুটিয়ে যায় পারটেক্স। ৩.৩ ওভার বল করে ১৬ রান খরচায় ৫ উইকেট নেন শাকিল। ১৭ রানে ২ উইকেট নেন সানি।

পারটেক্সের ওপেনার আব্বাস মুসা ২০, ইসহারুল ইসলাম-ধীমান ঘোষ ১৯ রান করে করেন। শাকিলের দুর্দান্ত বোলিংয়ের কল্যাণে ম্যাচ জিততে ১০৫ রানের টার্গেট পায় শেখ জামাল।

১৬ বল বাকী রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছায় শেখ জামাল। অধিনায়ক নুুরুল হাসান ৩০, সানি অপরাজিত ২৭ ও নাসির হোসেন ২২ রান করে দলের জয় নিশ্চিত করেন। ম্যাচ সেরা হন শাকিল। পারটেক্সের এটা ৬ষ্ঠ হার।

অন্যদিকে সাভারের বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করতে নামে ব্রাদার্স। ওপেনার মিজানুর রহমানের হাফ-সেঞ্চুরিতে ২০ ওভারে ৫ উইকেটে তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৩৪ রান। ৬১ বল খেলে ৪টি চার ও ২টি ছক্কায় ৬৬ রান করেন মিজানুর ।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৪ রান করেন রাহাতুল ফেরদৌস। খেলাঘরের খালেদ আহমেদ ও রিসাদ হোসেন ২টি করে উইকেট নেন। বৃষ্টি আইনে ১০৫ রানের সহজ টার্গেটে খেলতে নেমে প্রথম ওভারেই দুই ওপেনারকে হারায় খেলাঘর।

তিন নম্বরে নামা মেহেদি হাসান মিরাজ-অধিনায়ক জহিরুল ইসলাম ও ফরহাদ হোসেনের ব্যাট চড়ে ১৬.২ ওভার শেষে ৩ উইকেটে ১০৯ রান তুলে খেলাঘর। এরপর বৃষ্টির কারনে খেলা বন্ধ হয়। পরবর্তীতে আর খেলা শুরু না হওয়ায় বৃষ্টি আইনে জিতে যায় খেলাঘর।

বৃষ্টি আইনে ১৬.২ ওভারে ১০৫ রান করতে হতো খেলাঘরের। সেখানে তারা করে ১০৯ রান। মিরাজ অপরাজিত ৪০, অধিনায়ক জহিরুল ইসলাম ২৬ ও ফরহাদ অপরাজিত ২৯ বলে ৩৬ রান করেন। ম্যাচ সেরা হন ব্রাদার্সের মিজানুর।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন