তরুণীকে লঞ্চের কেবিনে ধ’র্ষ’ণ! অতঃপর

প্রকাশিত: জুন ২, ২০২১ / ১০:৪৪অপরাহ্ণ
তরুণীকে লঞ্চের কেবিনে ধ’র্ষ’ণ! অতঃপর

বরিশালে লঞ্চের কেবিনে এক তরুণীকে ধ’র্ষ’ণের অ’ভি’যোগ উঠেছে। বিয়ে এবং চাকরির প্রলোভন দি‌য়ে লঞ্চের কেবিনে নিয়ে ধ’র্ষ’ণ করার অ’ভি’যোগ তুলেছে ওই তরুণী। হিজলা-ভাষানচর-ঢাকা রুটের এমভি রাজহংস-১০ লঞ্চে গত শনিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে হিজলা থানার ওসি অসিম কুমার সিকদার বলেন, ঘটনা শনিবার রাতের হলেও আজ বুধবার দুপুরে ধ’র্ষ’ণের শি’কার তরুণী থানায় এসেছেন। আমরা তাদের সকল অভিযোগ শুনেছি। ওই তরুণী লিখিত অভিযোগ দিলে মামলা হিসেবে গ্রহণ করা হবে।

ওই তরুণীর বরাত দি‌য়ে হিজলা থানার ওসি আরো ব‌লেন, অভিযুক্ত যুবক মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার মাধরায় গ্রামের মাইদুল ইসলাম মাসুম। তাদের পূর্ব পরিচয়। মূলত বিয়ের প্রলোভনে এবং ঢাকায় চাকরি দিয়ে দিবে বলে প্রলুব্ধ করে লঞ্চের কেবিনে নিয়ে ধ’র্ষ’ণ করার ‘অভিযোগ তুলেছেন।

ভুক্তভোগী তরুণী জানান, তিনি লঞ্চের ডেকে যাচ্ছিলেন। লঞ্চ ছাড়ার পরে গভীর রাতে পূর্ব পরিচিত মাসুম এসে তাকে কেবিনে নিয়ে যায়। তাকে মাসুম বিবাহ করাসহ তার নামে অর্ধনির্মিত ভবন লিখে দেওয়ার প্রস্তাব করেন। কিন্তু তরুণী সম্মত না হলে একপর্যায়ে তরুণীকে লঞ্চের কেবিনে আটকে মাসুম ধ’র্ষ’ণ করেন।

তরুণী কান্নাকাটি করলে তাকে গ্রামে নিয়ে বিয়ে করার আশ্বাস দেন। কিন্তু র‌বিবার সকালে রাজধানীর সদরঘাটে তরুণীকে একা রেখে মাইদুল ইসলাম মাসুম পা’লি’য়ে যান। সেখান থেকে ফিরে সোমবার মাইদুলের বাসায় গিয়ে তার বাবা খলিল হাওলাদারকে বিষয়টি জানালে তিনি ১০ হাজার টাকা দিয়ে ম্যানেজ করতে চান।

এরপরে কাজিরহাট থানায় অভিযোগ দিতে গেলে থানা থেকে হিজলা থানায় অভিযোগ দেওয়ার জন্য বলেন। পরবর্তীতে আজ বুধবার ওই তরুণী হিজলা থানায় হা‌জির হন। ‌লি‌খিত অভিযোগ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হ‌য়ে‌ছে বলে জানান ওই তরুণী।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন