আর্চারের আগুনে পুড়ে শেষ অস্ট্রেলিয়া

হেডিংলি টেস্টের প্রথম দিনের খেলা অনেকটাই ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। কিন্তু সে বৃষ্টিও থামাতে পারেনি জোফরা আর্চারের আগুনে বোলিং। দিনে খেলা হয়েছে মাত্র ৫২ ওভার। এর মধ্যেই প্রথম দিনেই আর্চারের আগুনে পুড়ে শেষ অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংস।

প্রথম ইনিংসে অজিরা ১৭৯ রানেই অলআউট। আর্চার ১৭.১ ওভার বোলিং করে তুলে নেন ৬ উইকেট।

অজিদের প্রথম ইনিংসে বলার মতো রান এসেছে ডেভিড ওয়ার্নার ও মার্নাস লাবুসচাগনের ব্যাট থেকে। স্টিভেন স্মিথ না থাকায় অজিদের ভরসার চোখটা ছিলো ওয়ার্নারের উপরে। তিনিও তা মোটামুটি পূরণ করতে পেরেছেন। ৬১ রান এসেছে তার ব্যাট থেকে। অপরদিকে স্মিথের বদলি নামা লাবুসচাগনে করেন ৭৪ রান। তৃতীয় উইকেটে এই জুটিতে আসে শতাধিক রান। এই দুজন ছাড়া উল্লেখ করার মতো রান পাননি আর কেউই।

মূলত আর্চারের বোলিং তোপেই ভেঙে পরে অজি ব্যাটিং ডিপার্টমেন্ট। তার গতির ঝড়েই মূলত ৫২.১ ওভারেই গুটিয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়া। লর্ডসে নিজের অভিষেকে দুই ইনিংস মিলে ৫ উইকেট নেয়া আর্চার, এ ম্যাচের প্রথম ইনিংসেই তুলে নেন ৬ উইকেট, বিনিময়ে খরচ করেন মাত্র ৪৫ রান।

আর্চারের ছাড়াও স্টুয়ার্ট ব্রড ২টি এবং ক্রিস ওকস ও বেন স্টোকসরা নেন ১টি করে উইকেট। আলোকস্বল্পতার কারণে নির্ধারিত সময়ের আগেই খেলা বন্ধ করে দেন ম্যাচ রেফারি ফলে আর ব্যাটিংয়ে নামা হয়নি স্বাগতিকদের।

এর আগে, বৃষ্টিতে দেরিতে হওয়া টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ২৫ রানেই অজিদের দুই ওপেনার মার্কাস হ্যারিস (৮) ও টপঅর্ডার উসমান খাজার (৮) ফিরে যান। এই ধাক্কা অনেকটা সময়ই সামলে রাখেন তৃতীয় উইকেটে ১১১ রানের জুটি গড়া ওয়ার্নার ও লাবুসচাগনে। তারা ফিরে যাওয়ার পর আর কেউই দাঁড়াতে পারেননি উইকেটে।

কেবল অধিনায়ক টিম পেইনের ১১ রান ছাড়া বাকি ৮ ব্যাটসম্যানই ফেরেন সিঙ্গেল ডিজিটে। এদের মধ্যে তিনজন রানের খাতাই খুলতে পারেননি।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত