রং নাম্বারের প্রেমিকের বাসায় ২৮ দিন অবস্থান, অতপর যা হলো

প্রকাশিত: মে ৯, ২০২১ / ১১:০৬অপরাহ্ণ
রং নাম্বারের প্রেমিকের বাসায় ২৮ দিন অবস্থান, অতপর যা হলো

রং নাম্বারে প্রেমের সম্পর্কে সাভার থেকে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় হেলাল নামে এক তরুণের বাসায় ছুটে এসে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন এক তরুণী। ওই বাসায় ২৮ দিন অবস্থানের পর তরুণী জানতে পারেন প্রেমিক হেলাল বিবাহিত।

এ ঘটনায় উভয়ের মধ্যে বিরোধ দেখা দিলে তরুণী সাভারে চলে যাওয়ার চেষ্টা করেন। তখন বাধা দেয় প্রেমিক হেলাল। এরপর স্থানীয় লোকজন তাদের দুজনকে আটক করে পুলিশে দেন।

রোববার এ ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানায় ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা করেছেন ওই তরুণী।

পুলিশ জানায়, মোবাইলের রং নাম্বারে দুই মাসের পরিচয়ে ওই তরুণী ও হেলালের মধ্যে প্রেম ভালোবাসা হয়। আর এ ভালোবাসায় ১০ এপ্রিল তরুণী ছুটে আসেন সাভার থেকে ফতুল্লায় প্রেমিক হেলালের ভাড়া নেয়া বাসায়। এরপর থেকে বিয়ের প্রলোভনে তারা একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কে মিলিত হয়।
২৮ দিন পর শনিবার তরুণী জানতে পারেন হেলাল বিবাহিত। তার স্ত্রী আছে। ওই দিন দুপুরে তিনি সাভারে চলে যাওয়ার পথে রাজধানীর পোস্তগোলা এলাকায় পৌঁছলে হেলাল তার পথরোধ করে টানাহেঁচড়া করে। তখন তরুণী উপস্থিত লোকজনকে জানালে তারা দুজনকে আটক করে কদমতলী থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, তরুণ-তরুণীর শারীরিক সম্পর্কের ঘটনাস্থল ফতুল্লায়। এজন্য কদমতলী থানা পুলিশ আমাদের থানায় তাদের দুজনকে নিয়ে আসেন। এ বিষয়ে তরুণীর লিখিত অভিযোগে মামলা গ্রহণ করা হয়েছে।

তিনি জানান, গ্রেফতারকৃত হেলাল বরগুনা জেলার আমতলী থানার কড়াইবাড়ী গ্রামের শাহিন মিয়ার ছেলে। তিনি ফতুল্লার পোস্ট অফিস রোড এলাকার আওয়াল মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন