২ মাসে দেশকে করোনামুক্ত করার পরিকল্পনা বাইডেনের, শিশুদের জন্যও টিকা

প্রকাশিত: মে ৫, ২০২১ / ১১:১২পূর্বাহ্ণ
২ মাসে দেশকে করোনামুক্ত করার পরিকল্পনা বাইডেনের, শিশুদের জন্যও টিকা

যুক্তরাষ্ট্রের ৭০ শতাংশ বয়স্ক মানুষকে ৪ জুলাইয়ের মধ্যে কোভিড-১৯’র টিকাদান সম্পন্ন করার পরিকল্পনা রয়েছে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের। এবং যত দ্রুত সম্ভব ১২ থেকে ১৫ বছর বয়সীদের টিকা দেওয়া শুরু করতে চান তিনি। সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে এমনটি বলা হয়েছে।

নতুন পরিকল্পনায় বাইডেন বলেছেন, আগামী ৪ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবসের আগেই তিনি বয়স্কদের ৭০ শতাংশ অর্থাৎ ১৬ কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া সম্পন্ন করতে চান।

এ পরিকল্পনাকে বাস্তবসম্মত বলা হচ্ছে, কারণ এরই মধ্যে সাড়ে ১০ কোটি মানুষের টিকাদান সম্পন্ন হয়েছে। আর বর্তমানে দৈনিক প্রায় ১০ লাখ প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি টিকা পাচ্ছেন। তবে, তিন সপ্তাহ আগে এর চেয়েও দ্বিগুণ গতিতে টিকা দেওয়া হচ্ছিল।

এ ছাড়া করোনার টিকা নিয়ে সন্দেহপোষণকারীদের নিয়েও কাজ করছে বাইডেন প্রশাসন।

বাইডেন বলেন, ‘এখন আমরা সেসব লোককে টিকার আওতায় নিয়ে আসব, যারা এ ব্যাপারে কম আগ্রহী।’

ষাট শতাংশের বেশি মানুষকে টিকাদান সম্পন্ন করে ইসরায়েল তাদের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড পুরোদমে খুলে দিয়েছে। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার প্রায় শূন্যে নেমে এসেছে।

হোয়াইট হাউসে সোমবার জো বাইডেন বলেন, ‘দুই মাস পর আমরা স্বাধীনতা দিবস পালন করব। একইসঙ্গে আমরা এই ভাইরাস থেকেও স্বাধীনতা উদযাপন করব। আমরা এটা পারব, এটা আমরা করেই ছাড়ব।’ এদিন টিকার জন্য রেজিস্ট্রেশন জটিলতা নিরসনে ভ্যাকসিনস ডটজিওভি নামে একটি ওয়েবসাইট উদ্বোধন করেন বাইডেন।

এর আগেও বাইডেন ৪ জুলাইয়ের আগেই যুক্তরাষ্ট্রে ‘স্বাভাবিক জীবন ফিরিয়ে আনার’ পরিকল্পনার কথা বলেন।

মার্কিন প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারা বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রের মোট জনসংখ্যার ৭০ থেকে ৮৫ শতাংশ লোক টিকা নিলে সংক্রমণের হার অনেক কমে আসবে এবং দেশ স্বাভাবিক পর্যায়ে পৌঁছাবে।

বাইডেন আরও ঘোষণা করেন যে, তিনি ফেডারেল ফার্মেসি কর্মসূচির আওতায় হাজার হাজার ওষুধের দোকানকে নির্দেশ দিচ্ছেন, যাতে করে তারা তত্ক্ষণাৎ উপস্থিত লোকজনকে টিকা দেয়। এর পাশাপাশি বাইডেন বিভিন্ন ভ্রাম্যমান ক্লিনিক ও ছোট ছোট কমিউনিটি টিকা কেন্দ্রগুলোকে সরকারি সহায়তা প্রদানেরও নির্দেশ দিয়েছেন। বাইডেন ঘোষণা করেন, ফেডারেল সরকার টিকার নতুন চালান গোটা দেশের গ্রামীণ স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোতে পাঠাবে এবং লোকজনকে টিকা গ্রহণে উত্সাহিত করতে বিভিন্ন কমিউনিটির জন্য আরও অর্থ বরাদ্দ করবে।

শিশুদের জন্য পরিকল্পনা

যুক্তরাষ্ট্রের ফাইজার-বায়োএনটেকের তৈরি করোনার টিকা ১২ থেকে ১৫ বছর বয়সী এক কোটি ৭০ লাখের জন্যও অনুমোদনের লক্ষ্যে কাজ করছে খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ)। বর্তমানে ১৬ বছর বয়সীদের এই টিকা দেওয়া হচ্ছে। এফডিএর প্রক্রিয়ায় কোনোভাবেই হস্তক্ষেপ করতে যাবেন না জানিয়ে বাইডেন বলেন, ‘অনুমতি মিললে দ্রুত সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

প্রেসিডেন্টের প্রধান চিকিৎসা বিষয়ক উপদেষ্টা ড. অ্যান্থনি ফসি বলেছেন, স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে শিশুদের টিকা নেওয়া লাগতে পারে।

বয়স্ক আমেরিকানদের ৭৫ শতাংশ টিকার ডোজ সম্পন্ন করেছেন। সম্প্রতি শিশুদের মধ্যে করোনার সংক্রমণ বেড়েছে বলে আমেরিকান একাডেমি অব পেডিয়াট্রিকসের সোমবার প্রকাশিত গবেষণায় বলা হয়। যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তিন কোটি ৩২ লাখ ৭৪ হাজারের বেশি মানুষ। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে পাঁচ লাখ ৯২ হাজার ৪০৯ জনের।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন