কঙ্গোয় প্রতি ৩ জনের ১ জন খাদ্য সংকটে: জাতিসংঘ

প্রকাশিত: এপ্রি ৮, ২০২১ / ১১:৩১অপরাহ্ণ
কঙ্গোয় প্রতি ৩ জনের ১ জন খাদ্য সংকটে: জাতিসংঘ

জাতিসংঘের প্রকাশিত এক রিপোর্টে উঠে এসেছে যে, কঙ্গোর প্রায় ২৭ মিলিয়ন মানুষ এখনও সঠিক পরিমাণে খাবার পায় না। তীব্র ক্ষু’ধা’য় ভু’গছে তারা। এটি আফ্রিকার এক তৃতীয়াংশ। আফ্রিকার মোট জনসংখ্যা ৮৭ মিলিয়ন।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রামের দ্য ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচারাল অর্গানাইজেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, যারা ক্ষু’ধা জনিত কারণে ভু’গ’ছেন তাদের মধ্যে ৭ মিলিয়ন মানুষের অবস্থা শোচনীয়। আইপিসি স্কেলে পরিমাপ করে তাদের ফুড সিকিউরিটি ক্রাইসিস ধরা পড়েছে। কঙ্গোর প্রায় ২৭.৫ মিলিয়ন মানুষের পরিস্থিতি এমন যে তাদের বাঁ’চা’তে যত দ্রুত সম্ভব খাবারের ব্যবস্থা করা প্রয়োজন।

সংস্থাটির পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়, আইপিসি এমার্জেন্সি লেভেল অনুযায়ী ২০ শতাংশ গৃহস্থবাড়িতে ভ’য়া’নক খাদ্য সমস্যা। ফলে বড় রকমের অপুষ্টিতে ভো’গেন তারা। আর তার ফলে অনেক সময় তাদের মৃ’ত্যু’ও হয়। ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রামের কঙ্গোর প্রতিনিধি পিটার মুসোকো জানিয়েছেন, এই প্রথম বার তারা এত সংখ্যক মানুষের মধ্যে গবেষণা চালাতে পারলেন। আর তার ফলেই খাদ্য নিয়ে যে সংকট তৈরি হয়ে রয়েছে, তার এত কাছাকাছি আসতে পারলেন তারা।

এফএও ও ডাব্লিউএফপি’র মতে, কঙ্গোর মানুষ সবচেয়ে বেশি ক্ষ’তি’গ্র’স্ত হচ্ছেন শরণার্থীরা। এছাড়া কঙ্গোয় ফিরে আসা পরিবার, আবাসিক পরিবার, বন্যা, ধস, আগুন এবং অন্যান্য প্রাকৃতিক দু’র্যো’গে ক্ষ’তি’গ্র’স্ত হয়েছে এমন পরিবার বেশিমাত্রায় খাদ্য সংক’টের শি’কা’র। তাদের মতে সং’ঘা’ত এই খাদ্য সং’ক’টের অন্যতম কারণ।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন