কৃষকের ঘর ও ১৩ পশু পুড়ল কয়েলের আগুনে

প্রকাশিত: মার্চ ২৫, ২০২১ / ১০:৩১অপরাহ্ণ
কৃষকের ঘর ও ১৩ পশু পুড়ল কয়েলের আগুনে

বগুড়ার শিবগঞ্জে মশার কয়েল থেকে সৃষ্ট আগুনে কৃষক সাঈদ জামান মণ্ডলের তিনটি ঘর, আসবাবপত্র, নগদ টাকা ও ১৩টি গবাদিপশু পুড়ে গেছে।

আসবাবপত্র ও পশুগুলোকে রক্ষা করতে গিয়ে গৃহকর্তা (৫৫) অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন। তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বুধবার গভীর রাতে উপজেলার মোকামতলা ইউনিয়নের মুরাদপুর মধ্যপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মোকামতলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোখলেসার রহমান খলিফা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার রাত ৩টার দিকে মুরাদপুর মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত শমসের আলীর ছেলে সাঈদ জামানের বাড়িতে আগুন লাগে। মুহূর্তের মধ্যে আগুন তিনটি ঘরে ছড়িয়ে পড়ে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আসার আগেই তিনটি টিনের ঘর, তিনটি গরু ও ১০টি ছাগল, নগদ টাকা ও আসবাবপত্র পুড়ে যায়।

এসব রক্ষা করতে গিয়ে গৃহকর্তা সাঈদ জামান অগ্নিদগ্ধ হন। তাকে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সাঈদ জামানের ছেলে মাহমুদুল হাসান জানান, গোয়াল ঘরে রাখা জ্বলন্ত কয়েল থেকে বৈদ্যুতিক তারে আগুন লাগে। আগুন তিনটি ঘরে ছড়িয়ে পড়লে আসবাবপত্র, ১৩টি গবাদিপশু, নগদ টাকা পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে তাদের অন্তত ছয় লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

শিবগঞ্জ থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মোকামতলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোখলেসার রহমান খলিফা জানান, আগুনে কৃষক সাঈদ জামানের বাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের বিষয়টি শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করা হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে আর্থিক সহযোগিতা করেছেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন