প্রতিবেশী দেশগুলোকে পাশে পেতে চায় সরকার : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত: মার্চ ২৩, ২০২১ / ১১:১৬অপরাহ্ণ
প্রতিবেশী দেশগুলোকে পাশে পেতে চায় সরকার : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশকে দক্ষিণ মাল্টি মোডাল কানেকটিং হাব হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্য বাস্তবায়নে প্রতিবেশী দেশগুলোকে পাশে পেতে চায় সরকার। নেপালের প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ভান্ডারির ঢাকা সফরের বিশদ জানাতে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এমনটি জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন।

আজ মঙ্গলবার ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে আয়োজিত ব্রিফিংয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, দুই দেশ তাদের বাণিজ্যিক সম্ভাবনা বাড়াতে একযোগে কাজ করবে। মন্ত্রী জানান, নেপালের সঙ্গে অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তি বা পিটিএ শেষপর্যায়ে। এ ছাড়া নেপাল থেকে জলবিদ্যুৎ আমদানির বিষয়টি চূড়ান্ত বলে জানিয়েছেন ড. মোমেন। নেপাল বাংলাদেশের সৈয়দপুর, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিমানবন্দর এবং সমুদ্রপথ ও অভ্যন্তরীণ নৌরুট ব্যবহারের আগ্রহ দেখিয়েছে।

বিবিআইএন নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ, ভারত ও নেপাল এই রুট শুরু করবে। প্রয়োজনে ভুটান পরে যোগ দিতে পারে।

আবদুল মোমেন বলেন, ‘বাংলাদেশকে আমরা সমগ্র দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার গেইট ওয়ে, তথা মাল্টি মোডাল কানেকটিং হাবে পরিণত করতে চাই। এ জন্য ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশী নেপালের সঙ্গে বাংলাদেশের আন্তসীমান্ত পরিবহণ সংযোগ অবারিত ও সুগম করার নানাবিধ উদ্যোগ চলমান রয়েছে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘জলবিদ্যুতে বাংলাদেশ ইন্ডিয়া ভুটান সম্পৃক্ত থাকবে। এটা আমরা মোটামুটি ফাইনাল পর্যায়ে এসেছি। আশা করি, আমরা প্রয়োজনের সময় বিদ্যুৎ আনতে পারব এবং তাদের প্রয়োজনে আমরা বিদ্যুৎ দিতে পারব।’

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন