করোনা অ্যান্টিবডি নিয়ে প্রথম শিশুর জন্ম

প্রকাশিত: মার্চ ১৮, ২০২১ / ০৩:৪১অপরাহ্ণ
করোনা অ্যান্টিবডি নিয়ে প্রথম শিশুর জন্ম

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় এক অন্তঃসত্ত্বা নারী করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নেয়ার পর যে শিশুর জন্ম দিয়েছেন তার দেহেও করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি পাওয়া গেছে। এটি বিশ্বে প্রথম কোনো শিশু যে এই ভাইরাসটির অ্যান্টিবডি নিয়ে জন্মেছে।

দুজন শিশু বিশেষজ্ঞ তাদের অপ্রকাশিত এক নিবন্ধে এমনটাই দাবি করেছেন। নিবন্ধটি এখনও পিয়ার-রিভিউ করা বাকি আছে।

নিবন্ধের লেখক চিকিৎসক পল গিলবার্ট ও চ্যাড রুডনিক বলেন, শিশুটির মা একজন সামনের সারির স্বাস্থ্যকর্মী। তিনি যখন জানুয়ারিতে ৩৬ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন, তখন মডার্নার ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেন।

তাদের নিবন্ধে বলা হয়, টিকা গ্রহণের তিন সপ্তাহ পর ওই নারী একজন সুস্থসবল কন্যা শিশু প্রসব করেন। শিশুটির নাড়ীর রক্ত পরীক্ষা করে তাতে করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি শনাক্ত হয়।

এতে আরও বলে হয়, ‘অতএব, মাতৃত্বকালীন ভ্যাকসিন গ্রহণের ফলে সার্স-কোভ-২ (করোনাভাইরাস) এর বিরদ্ধে সুরক্ষা ও সংক্রমণ হ্রাসের সম্ভাবনা তৈরি হয়।’

গিলবার্ট বলেন, ‘আমাদের জানা মতে, ভ্যাকসিন (করোনাভাইরাসের) নেয়ার পর এটিই বিশ্বে প্রথম কোনো শিশুর অ্যান্টিবডি নিয়ে জন্মানোর ঘটনা।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা শিশুটির নাড়ী পরীক্ষা করে দেখছি যে মায়ের অ্যান্টিবডি শিশুর দেহে প্রবেশ করেছে কিনা, যেমনটা অন্তঃসত্ত্বা থাকার সময় অন্য ভ্যাকসিনের ক্ষেত্রেও আমরা দেখি।’

নিবন্ধের আরেক লেখক রুডনিক বলেন, ‘যেসব হাজার হাজার মা ভ্যাকসিন নিয়েছেন, আগামী কয়েক মাস ধরে তাদের হাজার হাজার শিশু অ্যান্টিবডি নিয়ে জন্মাবে। এ ঘটনা তেমনই একটি উদাহরণ।’

তিনি আরও বলেন, শিশুর ‘এই সুরক্ষা কতদিন থাকবে তা বুঝতে আরও গবেষণার প্রয়োজন আছে।’

গিলবার্ট ও রুডনিক জানান, তাদের নিবন্ধটি প্রকাশের জন্য গৃহীত হয়েছে। এটি আনুষ্ঠানিকভাবে জার্নালের ওয়েবসাইটে প্রকাশ হওয়ার অপেক্ষা করছেন তারা।

সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন