যে কারনে নিষিদ্ধ হলেন আমিরাতের অধিনায়কসহ ২ ক্রিকেটার

প্রকাশিত: মার্চ ১৬, ২০২১ / ০৬:০৩অপরাহ্ণ
যে কারনে নিষিদ্ধ হলেন আমিরাতের অধিনায়কসহ ২ ক্রিকেটার

আরব আমিরাতের অধিনায়ক মোহাম্মদ নাভিদ ও টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান শায়মান আনোয়ার বাটকে আট বছরের জন্য পেশাদার সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের খেলায় দুর্নীতির চেষ্টা করেছিলেন। তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগগুলোর বিস্তারিত তদন্ত শেষে আইসিসির দুর্নীতি দমন ট্রাইব্যুনাল আইসিসির ২.১.১ ও ২.৪.৪ ধারা লঙ্ঘনের জন্য এ শাস্তির সুপারিশ করে।

আইসিসির ইন্টিগ্রিটি ইউনিটের জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শাল বলেছেন, মোহাম্মদ নাভিদ এবং শায়মান আনোয়ার সংযুক্ত আরব আমিরাতের জাতীয় দলকে প্রতিনিধিত্ব করেছেন। নাভিদ অধিনায়ক এবং শীর্ষস্থানীয় উইকেট শিকারি ছিলেন। আনোয়ার ছিলেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। তারা উভয়ই দুর্নীতিগ্রস্ত কার্যকলাপের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। আমার বিশ্বাস এ শাস্তির ফলে অন্যরা এ ধরনের কার্যকলাপে সতর্ক হবেন।

মোহাম্মদ নাভিদ জাতীয় দলের হয়ে ২০১৯ সালের ৬ আগস্ট বিশ্বকাপ বাছাইয়ের সবশেষ খেলা ম্যাচে আরব আমিরাতের নেতৃত্ব দেন। জাতীয় দলের হয়ে ৩৯ ওয়ানডে ও ৩১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে পেস বোলিংয়ে ৯০ উইকেট শিকার করার পাশাপাশি ব্যাট হাতে ৫৭৩ রান সংগ্রহ করেন তিনি।

আরব আমিরাতের টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান শায়মান আনোয়ার ৪০ ওয়ানডে আর ৩২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ২ সেঞ্চুরি আর ১৭টি ফিফটির সাহায্যে ২ হাজার ১৯০ রান সংগ্রহ করেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন