এবার টিকটক বন্ধ হতে যাচ্ছে পাকিস্তানেও

প্রকাশিত: মার্চ ১১, ২০২১ / ১০:৫৬অপরাহ্ণ
এবার টিকটক বন্ধ হতে যাচ্ছে পাকিস্তানেও

অশ্লীল কন্টেন্ট প্রচারের অভিযোগে পাকিস্তানে বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে জনপ্রিয় ভিডিও অ্যাপ টিকটক। বৃহস্পতিবার দেশটির উচ্চ আদালত সরকারকে টিকটক বন্ধ করতে নির্দেশনা দেন।

জানা গেছে, অশ্লীল কন্টেন্ট প্রচারের অভিযোগে টিকটকের বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন পাকিস্তানের এক ব্যক্তি। ওই মামলার প্রেক্ষিতেই পেশোয়ার হাইকোর্ট চীনা অ্যাপটি নিষিদ্ধ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

পেশোয়ারের আদালত বলেছেন, টিকটক থেকে অশালীন কনটেন্ট ছড়ানোর বিষয়ে ব্যক্তিগত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাই সরকারকে টিকটক বন্ধ করে দিতে নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে।

বিভিন্ন গান, বিখ্যাত সিনেমার সংলাপসহ নানা ধরনের মজাদার অডিওর সঙ্গে ঠোঁট মিলিয়ে ছোট ভিডিও তৈরি করে আপলোড করা যায় টিকটক অ্যাপে।

শুনানির সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন পাকিস্তান টেলিযোগাযোগ কর্তৃপক্ষের প্রধানসহ অন্য জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা।

তারা জানিয়েছেন, পাকিস্তান সরকার ইতোমধ্যে টিকটককে তাদের প্ল্যাটফর্ম থেকে সবধরনের বেআইনি কন্টেন্ট সরিয়ে ফেলতে বলেছে। তবে এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যায়নি।

এসময় পাকিস্তানের প্রধান বিচারপতি কায়সার রশিদ খান বলেন, টিকটক দেশটির সাংস্কৃতিক মূল্যবোধের পরিপন্থী অশ্লীলতা ছড়াচ্ছে। যতক্ষণ না তারা আপত্তিকর কন্টেন্ট সরায়, ততক্ষণ অ্যাপটি বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

এর আগে গত অক্টোবরেও একই অভিযোগে টিকটক নিষিদ্ধ করেছিল পাকিস্তান। তবে মাত্র ১০ দিনের মাথায় সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়।

এর আগে চীনের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক তলানীতে ঠেকলে দিল্লি টিকটকসহ বেশকিছু চীনা অ্যাপ বন্ধ করে দেয়। ভারতে সে নিষেধাজ্ঞা এখনো বহাল রয়েছে।

সূত্র: রয়টার্স ও আনাদোলু এজেন্সি।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন