মির্জাপুরে বিভিন্ন মাম’লার ১৯ আ’সামি গ্রে’প্তা’র

প্রকাশিত: মার্চ ৫, ২০২১ / ১১:২৬অপরাহ্ণ
মির্জাপুরে বিভিন্ন মাম’লার ১৯ আ’সামি গ্রে’প্তা’র

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে থানা পুলিশ অভি’যান চালিয়ে পরো’য়ানাভুক্ত, হ’ত্যা ও নিয়মিত মা’ম’লার ১৯ আ’সা’মিকে গ্রে’প্তা’র করেছে। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অ’ভি’যান চালিয়ে তাদের গ্রে’প্তা’র করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছেন।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে থানা পুলিশের অভিযানে ১৯ জন আ’সা’মিকে গ্রে’প্তা’র করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ১৩ জন গ্রে’প্তা’রি প’রো’য়া’নাভুক্ত আ’সামি রয়েছে। তারা হলেন, উপজেলার আজগানা গ্রামের নান্নু মিয়ার ছেলে রউফ সিকদার ও তার স্ত্রী মিলন বেগম। জামুর্কী গ্রামের সুজন মিয়ার ছেলে সিয়াম, বাইমাইল গ্রামের অনিল মাস্টারের ছেলে আশু মন্ডল, তাজ মোহন মন্ডলের ছেলে মন মোহন মন্ডল, অষ্টলাল মন্ডলের দুই ছেলে যাদব মন্ডল ও রবীন্দ্র মন্ডল, পরিমল মন্ডলের ছেলে সঞ্জিত মন্ডল, ঘেতু মন্ডলের ছেলে সাগর মন্ডল, বাবু মন্ডলের মেয়ে তরুণী মন্ডল, হিলড়া গ্রামের মনিন্দ্র দাসের ছেলে মানিক দাস, জামুর্কী গ্রামের মৃ’ত বিনত মিয়ার ছেলে শহিদুল ইসলাম, একই গ্রামের তমেজ মিয়ার ছেলে বাতেন মিয়া।

অন্যান্য মা’ম’লার আ’সা’মিরা হলেন- পাথরঘাটা গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে তারেক ইসলাম, ডোহাতলী গ্রামের সোহরাব মিয়ার ছেলে শাকিল মিয়া, একই গ্রামের মৃ’ত দুলাল মিয়ার ছেলে রনি মিয়া, থলপাড়া গ্রামের মৃ’ত ছামান মিয়ার ছেলে শামীম আল মামুন এবং মহেড়া ইউনিয়নের দেওভোগ গ্রামের হযরত মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন ও তার স্ত্রী মনি বেগম।

মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রিজাউল হক বলেন, থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতভর অভি’যান চালিয়ে হ’ত্যা, পরো’য়ানাভুক্ত ও বিভিন্ন মা’ম’লার ১৯ আ’সা’মিকে গ্রে’প্তা’র করে। শুক্রবার আদালতের মাধ্যমে গ্রে’প্তা’র’কৃ’তদের জে’ল’হা’জতে পাঠানো হয়েছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন