শিবগঞ্জে গলা কে’টে বৃদ্ধাকে হ’ত্যা

প্রকাশিত: মার্চ ৫, ২০২১ / ১১:২২অপরাহ্ণ
শিবগঞ্জে গলা কে’টে বৃদ্ধাকে হ’ত্যা

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে স্বামী পরিত্যা’ক্তা নারী ৫২ বছরের বৃদ্ধা যমুনা পালের গ’লা কা’টা লা’শ উ’দ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় হ’ত্যা মা’মলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে নি’হ’তের ভাই প্রবীর পাল বাদি হয়ে অ’জ্ঞাতনামাদের আ’সা’মি করে শিবগঞ্জ থানায় হ’ত্যা মা’মলা দায়ের করেন।

শিবগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, যমুনা পাল হ’ত্যা’র ঘটনায় চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তাদের যদি সম্পৃক্ততা পাওয়া যায় তবে মাম’লায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে।
তিনি আরো জানান, হ’ত্যা মা’মলাটি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করা হচ্ছে। প্র’কৃ’ত আ’সা’মিদের যেন সঠিক বি’চা’র হয় সে বিষয়ে খেয়াল রাখা হচ্ছে।

৪ মার্চ বৃহস্পতিবার ভোরে শিবগঞ্জ পৌর এলাকার ৪নং ওয়ার্ডের বাবু পাড়ায় একটি ভাড়া বাসা থেকে যমুনা পাল (৫২ ) নামে এক নারীর গ’লা কা’টা মর’দেহ উ’দ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ছেলের বউ পলি পালসহ আরো তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ। চারজন পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।

শ্রী যমুনা পাল ও তার ছেলে শ্রী উজ্জল পালের স্ত্রী শ্রী পলি পাল ভাড়া বাসায় থাকত। ঘটনার রাতে যমুনা পালের ছেলে উজ্জল বাড়িতে ছিল না, সে ঋণগ্রস্ত হয়ে কয়েক মাস থেকে বাড়ির বাইরে রাজশাহীর একটি এলাকায় তার শ্বশুর শ্রী বিষনু পালের বাড়িতে থেকে কাজ করতো।

শ্রী পলি পাল স্থানীয় এক এনজিওতে মাঠকর্মী হিসেবে কাজ করত। নি’হ’ত যমুনা পালের ভাই শ্রী প্রবীর চন্দ্র পাল বলেন, বউ-শাশুড়ির সঙ্গে খুব ভালো বা খুব খা’রা’প সম্পর্ক ছিল না। স্বামী বাড়িতে না থাকায় ছেলে বউ পলি পাল পর’কীয়াতে জ’ড়িয়ে পড়ায় যমুনা পালের ছেলের বউয়ের ঘরে গভীর রাতে অন্য পুরুষকে দেখা ফেলায় এমন ঘটনা ঘটতে পারে বলে অনেকেরই ধারণা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন