গভীর রাতে কানফা’টানো হিন্দি গান: এএসপির হস্তক্ষেপে এলাকাবাসীর স্বস্তি

প্রকাশিত: ফেব্রু ২৭, ২০২১ / ১২:১১অপরাহ্ণ
গভীর রাতে কানফা’টানো হিন্দি গান: এএসপির হস্তক্ষেপে এলাকাবাসীর স্বস্তি

রাত প্রায় ১টা। বৃহস্পতিবার রাতে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার মরিয়মনগর এলাকার এক বিয়েবাড়ির অনুষ্ঠানে গভীর রাতেও কানফা’টানো শব্দে বাজানো হচ্ছিল হিন্দি গান।

পরে এলাকবাসী ৯৯৯-এ ফোন করে অভিযোগ দেওয়ার পর ১০ মিনিটের মধ্যে চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার (রাউজান-রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) আনোয়ার হোসেন শামীম পুলিশ নিয়ে আসায় নিস্তার মেলে এলাকাবাসীর।

এসময় পুলিশের পক্ষ থেকে আয়োজকদেরকে বুঝিয়ে গান বাজানো হতে নিবৃত্ত করার পাশাপাশি অতিথিদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শও দেওয়া হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহত্তর চট্টগ্রামে সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন উপলক্ষকে কেন্দ্র করে গভীর রাত পর্যন্ত উচ্চস্বরে গান বাজানোর প্রবণতা তৈরি হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, তাদের প্রত্যেককেই নাগরিক জীবনের এই উপদ্রব পোহাতে হয়। বিয়ে, গায়ে-হলুদ, জন্মদিন, ৩১ ডিসেম্বর, বিয়ে বার্ষিকীসহ নানা অনুষ্ঠানে দীর্ঘ রাত ধরে উচ্চ শব্দে গান বাজানোর ঘটনার মুখোমুখি হতে হয়। কখনো প্রতিবাদ করলে কাজ হয়। কখনো নীরবে তারা মেনে নেন এসব উপদ্রব।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উচ্চ শব্দে যন্ত্র বাজানো নিয়ন্ত্রণে আইন আছে। এর দেখ-ভালের কর্তৃপক্ষও আছে। তবে আইনের কোনো প্রয়োগ নেই, কোনো কর্তৃপক্ষও এসব নিয়ে গরজ করে না, এমন অভিযোগ স্থানীয়দের।

এ প্রসঙ্গে এএসপি আনোয়ার হোসেন শামীম জানান, গভীর রাতে শব্দদূষণের বিষয়ে স্থানীয়দের ৯৯৯-এ অভিযোগের পর আমরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে যথাযথ পদক্ষেপ নিই। নিজেদের উৎসব-পার্বণ উদযাপনে স্থানীয়দের যেন সমস্যা না হয়, এ বিষয়ে সচেতন থাকতেও সবার প্রতি অনুরোধ রাখেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন