ইউপি সদস্য ব্যক্তিগত ভবন তৈরি করল সরকারি কাজের ইট দিয়ে!

প্রকাশিত: ফেব্রু ২৫, ২০২১ / ০৭:১২অপরাহ্ণ
ইউপি সদস্য ব্যক্তিগত ভবন তৈরি করল সরকারি কাজের ইট দিয়ে!

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে পূর্বভাগ ইউনিয়নের চান্দেরপাড়া গ্রামের ৫নং ওয়ার্ড সদস্য মো. ইয়াছিন মিয়ার বিরুদ্ধে পুকুর ঘাটলা ও সরকারি রাস্তার ইট দিয়ে নিজের পাকা ভবন তৈরির অভিযোগ উঠেছে।

এ নিয়ে গত মাসের ২০ জানুয়ারি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন মো. আলাউদ্দিন নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা। পরে তার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা এলজিইডিকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন ইউএনও।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নের চান্দেরপাড়া গ্রামের কোনাবাড়ি জামে মসজিদের উত্তর-পশ্চিম পাশের পুকুরে ২০১৪ সালে মুসল্লিদের ওজু করার সুবিধার্থে একটি ঘাটলা নির্মাণ করা হয়। এর কিছুদিন পর চান্দেরপাড়া ৫নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য ইয়াছিন মিয়া পুকুর ঘাটলার সব ইট খুলে নিয়ে তার পাকা ভবনের কাজে ব্যবহার করেন।

এ নিয়ে স্থানীয়রা বাধা দিলে ইউপি সদস্য নতুন করে আরেকটি ঘাটলা তৈরি করে দেবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন। এরপর দুই বছর কেটে গেলেও পুকুরের ঘাটলা নির্মাণ করে দেননি ওই ইউপি সদস্য।

স্থানীয় একটি মসজিদের ক্যাশিয়ার মো. ফজলুল হক জানান, অভিযুক্ত ইউপি সদস্য ইয়াছিন শুধুমাত্র মসজিদের ঘাটলার ইট চুরি করেননি। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে মসজিদের পাশে একটি রাস্তা নির্মাণের জন্য এলজিইডির দুইটি প্রজেক্টে পাঁচ লাখ টাকা দিয়ে ইট সলিংয়ের কাজ করেন। রাস্তা নির্মাণের কিছুদিন পরই রাস্তার সব ইট মেম্বার নিজের বাড়িতে নিয়ে পাকা ভবন তৈরি করছেন। বাধা দিলে আমাদের মামলার হুমকি দেন।

ইউপি সদস্য ইয়াছিন মিয়া জানান, আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ মিথ্যা। আমি পুকুর ও রাস্তার ইট নিজের বাড়ির কাজে লাগাইনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমা আশরাফী বলেন, একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্ত করার জন্য এলজিইডিকে দায়িত্ব দিয়েছি। তদন্ত প্রতিবেদন পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন