বিতর্কের মধ্যেই বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সারলেন নাসির

প্রকাশিত: ফেব্রু ২১, ২০২১ / ০৩:২৮অপরাহ্ণ
বিতর্কের মধ্যেই বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সারলেন নাসির

বিয়ের পর পরই স্ত্রী তামিমা তাম্মিকে নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছেন ক্রিকেটার নাসির হোসেন। অভিযোগ উঠেছে, প্রথম স্বামীকে তালাক না দিয়ে নাসিরকে বিয়ে করেছেন তামিমা। বিষয়টি নিয়ে গতকাল শনিবার দিনভর চলেছে সমালোচনা। এসব বিতর্কের মধ্যেই গতরাতে রাজধানীর গুলশানের একটি হোটেলে জাঁকজমকভাবে বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন নাসির।

নাসির-তামিমার বিয়ের অনুষ্ঠানে দেখা যায় ক্রিকেটার সৌম্য সরকার, শফিউল ইসলাম, সোহরাওয়ার্দী শুভসহ কয়েকজনকে। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে রাজধানীর উত্তরার এক রেস্তোরাঁয় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারেন নাসির। ১৭ ফেব্রুয়ারি ছিল এ যুগলের গায়েহলুদ। এর একদিন পর গতকাল জাঁকজমকপূর্ণভাবে হয় তাঁদের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা।

সেই আনন্দের সুরে গতকাল দুপুরে তাল কাটেন তামিমার প্রথম স্বামী রাকিব। এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে নাসির ও রাকিবের কথোপকথনের অডিও ক্লিপ। ওই কথোপকথনে তামিমার প্রথম বিয়ের সত্যতা মেলে। নাসিরও স্বীকার করেন, সবকিছু জেনেই তামিমাকে বিয়ে করেছেন তিনি।

ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ে মুঠোফোনে রাকিব হাসানকে কল করা হলে এনটিভি অনলাইনকে তিনি জানান, ডিভোর্স বা কোনো কিছু না জানিয়ে নাসিরকে বিয়ে করেছেন তাঁর স্ত্রী তামিমা। তিনি বলেন, ‘হঠাৎ করে শুনলাম নাসির আমার ওয়াইফের হাজব্যান্ড হয়ে গেছে। আমার বউয়ের সঙ্গে ডিভোর্স ছাড়া সে তামিমাকে বিয়ে করেছে। সে (তামিমা) আমাকে এখনো কোনো কাগজ পাঠায়নি।

হঠাৎ করে আমি শুনতেছি যে সে বিয়ে করে ফেলেছে। আমার এক বন্ধু বলতেছে, দেখেন তো রাকিব ভাই, তামিমা আপু তো নাসিরকে বিয়ে করে ফেলেছে। আমি নিজেও অবাক হয়েছি। পরে আমি তামিমাকে ফোন দিয়েছি, এসএমএস করেছি, সে কিছুর জবাব দেয়নি। পরে আমি উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি জিডি করেছি।’

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন