রোগীকে হাসপাতালের বেডে উঠে চিকিৎসকের বেধড়ক মারপিট

চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগে অনেক সময় চিকিত্সকদের বেধড়ক মারধরের খবর মাঝে মাঝেই পাওয়া যায়। কিন্তু এ বার একেবারে উল্টো দৃশ্য দেখা গেল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে। এতে দেখা যাচ্ছে, রোগীকে হাসপাতালে বিছানায় ফেলে বেধড়ক মারধর করছেন এক চিকিত্সক!

গত শনিবার ভারতের রাজস্থান প্রদেশের জয়পুরের একটি হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটেছে। রাজস্থানের জয়পুরের সোয়াই মান সিংহ হাসপাতালের এই ঘটনায় চিকিত্সকের শাস্তি দাবি করেছেন অনেকে। রোগীর পরিবারের অভিযোগ, চিকিৎসকের কথা না শোনায় রোগীকে বেধড়ক পিটিয়েছেন তিনি।

এ রকম বদ মেজাজের জন্য হাসপাতালে ওই চিকিত্সকের বেশ পরিচিতি রয়েছে। কিন্তু তাই বলে হাসপাতালের বেডের ওপর উঠে রোগীকে মারধরের ঘটনায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জিনিউজ বলছে, ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছে রাজস্থান সরকার। রাজস্থানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রঘু শর্মা ঘটনার প্রতিবেদন চেয়ে পাঠিয়েছেন। ঘটনার সত্যতা প্রমাণ হলে ‘উপযুক্ত ব্যবস্থা’ নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। এই ঘটনায় রাজস্থানের মানবাধিকার কমিশনও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে তথ্য জানতে চেয়েছে।

সোয়াই মান সিংহ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অভিযোগ, প্রথমে ওই রোগী এক নারী চিকিৎসকের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। পরে তাকে বোঝানোর চেষ্টায় বিবাদে জড়িয়ে পড়েন অন্য এক পুরুষ চিকিৎসক। চিকিত্সকদের উপর চড়াও হওয়ার চেষ্টা করলে ওই রোগীকে আটকানোর চেষ্টা করেন সেখানে উপস্থিত চিকিত্সক ও অন্যান্য রোগীর আত্মীয়রা।

শেষ পর্যন্ত ঘটনাটি হাতাহাতির পর্যায়ে পৌঁছে যায়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, ভাইরাল হওয়া ৩১ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে ঘটনার কিছু অংশ ধরা পড়েছে। ওই রোগীর নাম মুবারক। রোগী সুস্থ রয়েছে। তবে তাকে আর কয়েক দিনের মধ্যে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেয়া হবে।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত