যুক্তরাষ্ট্রে সরকারি ভবনে বন্দুকধারীর হামলায় নিহত ১১

যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের একটি সরকারি ভবনের ভেতরে বন্দুকধারীর হামলায় অন্তত ১১ জন নিহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় শুক্রবার বিকেলে এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো বেশ কয়েকজন। পুলিশের গুলিতে বন্দুকধারীও নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ঘটনাটিকে ভার্জিনিয়া বিচের ইতিহাসে ভয়াবহ দিন বলে মন্তব্য করেছেন ভার্জিনিয়ার গর্ভনর র‌্যালফ নর্থাম।

স্থানীয় সময় শুক্রবার বিকেলে যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া বিচের পৌর ভবনে প্রবেশ করে এক বন্দুকধারী। এসময় ভেতরে থাকা কর্মচারীদের লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি চালায় সে। এতে বেশ কয়েকজন নিহত হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় অনেককে।

আহতরা জানান, হঠাৎ আমরা গুলির শব্দ পাই। তবে, এটা যে ভবনের ভেতরেই ছিল তা বুঝতে পারিনি। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। তারা সময় মতো না আসলে আরও অনেক ক্ষতি হতে পারতো।

হতাহতদের মধ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর এক সদস্য রয়েছেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। একইসঙ্গে পুলিশের পাল্টা গুলিতে বন্দুকধারীও নিহত হয়েছে বলেও জানানো হয়।

ভার্জিনিয়া বিচ পুলিশ প্রধান জেমস কারভেরা বলেন, ৪টার দিকে খবর পেয়েই পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। এসময় পুলিশকে লক্ষ্য করেও গুলি চালায় অস্ত্রধারী। এতে আমাদের একজন আহত হয়েছেন। পরে, পুলিশ পাল্টা গুলি ছুড়লে বন্দুকধারী মারা যান।

এ ঘটনাকে ভার্জিনিয়া বিচের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ দিন বলে মন্তব্য করেছেন ভার্জিনিয়ার গর্ভনর র‌্যালফ নর্থাম। তিনি বলেন, ভার্জিনিয়া বিচে এমন ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক। ভয়াবহ এ হামলায় হতাহতদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। নিরাপত্তা বাহিনীর দ্রুত পদক্ষেপে সবকিছু এখন স্বাভাবিক রয়েছে।

এখন পর্যন্ত হামলাকারীর পরিচয় কিংবা হামলার কারণ প্রকাশ করা হয়নি। তবে, মার্কিন গণমাধ্যম জানিয়েছে বন্দুকধারী ভার্জিনিয়া বিচের পাবলিক ওয়াকার্স বিভাগে দীর্ঘদিন কর্মরত ছিলেন।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত