পাকিস্তান করল মাত্র ১০৫

বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে উইন্ডিজকে ১০৬ রানের টার্গেট দিয়েছে পাকিস্তান। টানা দশ ম্যাচে হেরে বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করেছে পাকিস্তান। হারের সেই ভয়ই যেনো ফুটে উঠলো ব্যাটিংয়ে। টস হেরে যাওয়ার পর অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের কথাতেও ছিল আত্মবিশ্বাসের ঘাটতি। টস হেরে হতাশার কথা গোপন রাখেননি শরফরাজ।

জানিয়েছিলেন, তারা আগে ফিল্ডিং করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু টসভাগ্য লেখা ছিল জেসন হোল্ডারের কপালে। ম্যাচের শুরুতে পিচ-কন্ডিশনটা ভালোই কাজে লাগিয়েছে উইন্ডিজ। হারতে হারতে গলায় ফাঁস পড়ে যাওয়া পাকিস্তানের টুটিটাই চেপে ধরেন উইন্ডিজ পেসাররা।

শুরু থেকেই তোপ দাগতে থাকেন ওশানে থমাস এবং শেলডন কটলেরা। তাদের সঙ্গে আন্দ্রে রাসেল যোগ দেয়ার পর তা আরো ভারী হয়ে দাঁড়ায় বাবর আজম-হারিস সোহেলদের কাছে।

২ রানে কটরেলের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ইমাম-উল হক। উইন্ডিজ পেসারদের চোখ রাঙাতে থাকা ফখর জামান ২২ রান করে ফেরেন। বলতে গেলে, ক্রিকেদেবী তার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন এদিন। আন্দ্রে রাসেলের বাউন্সার সরাসরি আঘাত হানে তার হেলমেটে। বলটি পড়ে যাওয়ার সময় নিজের হাতে লেগে গতিপথ পাল্টে পড়ে স্ট্যাম্পের উপর।

হারিস সোহেলকে উইকেটের পেছনে শেই হোপের গ্লাভসবন্দি করেন রাসেল। অধিনায়ক সরফরাজও নিতে পারেন দায়িত্ব। ৮ রানে তাকে ফেরান হোল্ডার।

ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়া দলকে টেনে তোলার শেস ভরসা ছিলেন ছয় নম্বরে ব্যাটে নামা অভিজ্ঞ মোহাম্মদ হাফিজ। কিন্তু চাপটা তিনিও নিতে পারলেন না। ইমাদ ওয়াসিম, শাদাব খান এবং হাসান আলীদের ব্যর্থতার পর তিনিও ফিরে যান ১৬ রানে।

শেষ উইকেট জুটিতে ওয়াবা রিয়াজ ১৮ রান করে দলীয় শতক পার করেন। উইন্ডিজের হয়ে ২৭ রানে চারটি উইকেট তুলে নেন ওশানে থমাস। জেসন হোল্ডার নেন ৩ উইকেট এবং আন্দ্রে রাসেলের ঝুলিতে যায় ২টি উইকেট।

স্কোর: পাকিস্তান: ১০৫/১০ (২১.৪) ইমাম-উল হক ২ (১১) ফখর জামান ২২ (১৬) বাবর আজম ২২ (৩৩) হারিস সোহেল ৮ (১১) শরফরাজ আহমেদ ৮ (১২) মোহাম্মদ হাফিজ ১৬ (২৪) ইমাদ ওয়াসিম ১ (৩) শাদাব খান ০ (১) হাসান আলী ১ (৪) ওয়াহাব রিয়াজ ১৮ (১১) মোহাম্মদ আমীর ৩* (৬)

বোলার: শেলডন কটরেল ৪-০-১৮-১ জেসন হোল্ডার ৫-০-৪২-৩ আন্দ্রে রাসেল ৩-০-৪-২ কার্লস ব্রাথওয়েট ৪-০-১৪-০ ওশানে থমাস ৫.৪-০২৭-৪

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত