ইরানের ‘সন্ত্রাসবাদী’ কার্যক্রমের বিরুদ্ধে এক হওয়ার আহ্বান সৌদি বাদশাহর

মক্কায় আয়োজিত জিসিসির জরুরি সভায় সৌদি আরবের প্রধান শত্রুরাষ্ট্র ইরানকে কঠিন ভাষায় আঘাত করেছেন কিং সালমান আব্দুল আজিজ। পরমাণু বোমা তৈরির চেষ্টা ও ইরানের ব্যালেস্টিক মিসাইল উৎপাদন মধ্যপ্রাচ্যসহ সমগ্র বিশ্বে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করছে বলেও দাবি করেন তিনি। এসময় উপস্থিত অন্যান্য আরব রাষ্ট্র প্রধানদের ইরানের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানান কিং সালমান। এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা।

বৃহ¯পতিবার, সৌদি আরবের মক্কা নগরীতে ইরানের সঙ্গে উত্তেজনাকে সামনে রেখে জিসিসিভুক্ত দেশগুলোর জরুরি সভা ডাকেন সৌদি কিং। সম্মেলনের পর একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়। এতে বলা হয়, সৌদির তেল স্থাপনা ও ট্যাংকারে হামলার পর নিজ স্বার্থ রক্ষার অধিকার সৌদি আরবের রয়েছে। তবে ইরানের অন্যতম বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র ইরাক আরব রাষ্ট্রগুলোকে জানিয়েছে, তেহরানের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে অন্য রাষ্ট্রগুলোর হস্তক্ষেপ কাম্য নয়।

সম্মেলনজুড়ে আরব ও বিশ্বনেতাদের প্রতি কিং সালমান যে কোনো মূল্যে ইরানকে দমনের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, তেহরানের এসব পদক্ষেপ সমুদ্রপথে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ও বিশ্বব্যাপী তেল সরবরাহ ব্যহত করছে।

তিনি ইরানের কর্মকা-কে নগ্ন আগ্রাসন হিসেবে আখ্যায়িত করেন। বক্তব্যের এক পর্যায়ে ইরান সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করছে জানিয়ে জিসিসি দেশগুলোকে ইরানের বিরুদ্ধে গুরুত্ব সহকারে কাজ করতে বলেন সৌদির কিং।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত