‘গাড়ি থামিয়ে ডাকাতির চেষ্টা’, টঙ্গীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

রাজধানীর অদূরে টঙ্গী ব্রিজ এলাকায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। পুলিশের এই এলিট ফোর্সের দাবি, নিহতরা ডাকাত দলের সদস্য।

র‍্যাব-১-এর অধিনায়ক (সিও) সারওয়ার বিন কাশেম দাবি করেন, গতকাল বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে টঙ্গী ব্রিজ এলাকায় বন্দুকযুদ্ধে দুজন নিহত হন। প্রাইভেটকার থামিয়ে অস্ত্রের মুখে ডাকাতির সময় র‍্যাবের টহল টিমের সঙ্গে ডাকাতদলের এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহতদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, সাতটি মোবাইল, দুটি সুইচগিয়ার, ছুরি, গ্যাসলাইট ছয়টি ও গুলির খোসা জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় টঙ্গী থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।

‘বন্দুকযুদ্ধ’ সম্পর্কে র‍্যাব অধিনায়কের ভাষ্য হচ্ছে, ঈদ সামনে রেখে টানা পার্টি, ছিনতাইকারী ও অস্ত্রের মুখে গাড়ি থামিয়ে নগদ টাকা-পয়সা লুট ও গাড়ি ডাকাতির চক্র সক্রিয় হয়েছে। এ জন্য জনগণের নিরাপত্তায় র‍্যাব টহল জোরদার করেছে।

‘নিয়মিত টহলের অংশ হিসেবে র‍্যাব-১-এর একটি টহল টিম টঙ্গী ব্রিজ এলাকায় নিয়োজিত ছিল। রাত ১২টা ২০ মিনিটের দিকে টঙ্গী ব্রিজের ঠিক নিচে একটি প্রাইভেটকার থামিয়ে অস্ত্রের মুখে ডাকাতির চেষ্টা করছিল একদল ডাকাত। চিৎকার শুনে টহল টিম ধাওয়া করলে ডাকাতদল গুলি করে। র‍্যাবও নিরাপত্তার স্বার্থে গুলি করে।’

সারওয়ার বিন কাশেম বলেন, ‘এতে এক র‍্যাব সদস্যের (সৈনিক) বাঁ পায়ে গুলি ঢুকে বেরিয়ে যায়। তাঁকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়েছে। অন্য আরো দুই র‍্যাব সদস্যকে টঙ্গী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে র‍্যাবের টহল টিম পৌঁছার পর দুজনের মরদেহ দেখা গেছে।’

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত