যে কারণে মৃত মাছ খাওয়া হালাল

প্রকাশিত: ফেব্রু ১৭, ২০২১ / ০১:২০অপরাহ্ণ
যে কারণে মৃত মাছ খাওয়া হালাল

পানি থেকে ওঠানোর কারণে, কোনো আঘাত পাওয়ায়, পানিতে কোনো বিষ মিশানোর কারণে বা সরাসরি সূর্যের তাপ পড়া ইত্যাদি কারণে যদি কোন মাছ মারা যায়, তবে তা নষ্ট হওয়ার আগে খাওয়া যাবে অর্থাৎ মৃত মাছ খাওয়া হালাল। মাছ স্বাভাবিকভাবে মৃত্যুবরণ করলে, তখন বিষাক্ত রক্ত দেহাভ্যন্তরে গোশতের সাথে থেকে যায় না। সেকারণ এসব মৃত প্রাণী খাওয়া ইসলামে জায়েজ আছে।

পবিত্র কোরআনে মহান রাব্বুল আলামিন আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেন, ‘তোমাদের জন্য হারাম করা হয়েছে মৃত পশু।’ (সূরা: মাইদাহ, আয়াত: ৩)

অন্য আয়াতে রাব্বুল আলামিন আল্লাহ তায়ালা সমুদ্রের মাছ খাওয়াকে হালাল করেছেন। তিনি বলেন, ‘তোমাদের জন্য সমুদ্রের শিকার ও সুমুদ্রের খাদ্য হালাল করা হয়েছে তোমাদের উপকারার্থে তোমাদের জন্য।’ (সূরা: মাইদাহ, আয়াত: ৯৬)

হজরত ইবনে ওমর (রা.) হতে বর্ণিত, রাসূলাল্লাহ (সা.) বলেন, ‘আমাদের জন্য দু’প্রকার মৃত জন্তু এবং দু’প্রকার রক্ত ভক্ষণ করা হালাল করা হয়েছে। মৃত জন্তু হলো মাছ ও পংগপাল। আর রক্ত হলো কলিজা এবং প্লীহা।’ (ইবনে মাযাহ)

এছাড়া যে মাছ বিনা কারণে মারা যাবে তা খাওয়া মাকরুহ। রাসুলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেন, ‘তোমরা সাগরে নিক্ষেপকৃত মাছ, শুকনায় উঠে যাওয়া মাছ খাও। আর বিনা কারণে মৃত মাছ খেয়ো না।’ (আবু দাউদ, হাদিস : ৩৮১৫)

মহান রাব্বুল আলামিন আমাদের জন্য যেসব খাদ্য ক্ষতিকর না তা-ই হালাল এবং যা আমাদের জন্য ক্ষতিকর আল্লাহ তায়ালা তা-ই হারাম করেছেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন