চোটে ‘অনিশ্চিত’ সাইফউদ্দিনের বিশ্বকাপ

বিশ্বকাপ শুরুর আগে ছোবল দেয়া শুরু করেছে চোট। একজন একজন করে বিশ্বকাপ দল থেকে ছিটকে যাচ্ছেন ক্রিকেটাররা। চোটের কারণে অস্ট্রেলিয়া হারিয়েছে তাদের অন্যতম উদীয়মান পেস তারকা জাই রিচার্ডসনকে। সাউথ আফ্রিকা আবার ঝুঁকিতে আছে তাদের চার পেসারকেই নিয়ে। শঙ্কায় আছেন ভারতের অলরাউন্ডার কেদার যাদব। মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে ঘিরেও এখন একই রকম শঙ্কা বাংলাদেশ দলে। ক্রিকবাজের বরাতে আইসিসি জানাচ্ছে এমনটাই!

আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচের দলে ছিলেন না সাইফউদ্দিন। চোটের কারণে সে ম্যাচের পুরোটা বিকেলই ফিজিও শিহান চন্দ্রমোহনের সঙ্গে কাঁটান সাইফ। তার বদলি হিসেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক হয় পেসার আবু জায়েদ রাহির।

‘সাইফউদ্দিন তার কোমরের দিকে একটা ব্যথা অনুভব করছে। তাই আমরা ওকে নিয়ে আর ঝুঁকি নিতে চাইনি। আর এজন্যই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আমরা তাকে (আবু জায়েদ) অভিষেক করিয়েছি।’, ক্রিকবাজকে এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।

অভিষেক ম্যাচে স্মরণীয় কিছু করতে পারেননি রাহি। নয় ওভারে ৫৬ রান দিয়ে থেকেছেন উইকেটশূন্য। যদিও অভিষেক হওয়ার আগেই বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পেয়েছেন, তারপরও মূল আসরে খেলতে যাওয়ার আগে রাহিকে কিছু ম্যাচ খেলতে দেয়ার পক্ষপাতী প্রধান নির্বাচক, ‘পর্যাপ্ত সুযোগ না দিয়ে জায়েদকে বিশ্বকাপে না নেয়াটা অবিচার করা হবে।’

সাইফউদ্দিনের প্রথম বিকল্প হিসেবে এখন তাসকিন আহমেদকেই নজরে রাখছেন নির্বাচকেরা। বিশ্বকাপ দলে না থাকলেও ত্রিদেশীয় দলে আছেন এ পেসার। এখন পর্যন্ত একটি ম্যাচও খেলেননি তাসকিন। প্রস্তুতি ম্যাচে আয়ারল্যান্ড উলভসের (‘এ’ দল) বিপক্ষে অবশ্য খেলেছেন। ৬৬ রান খরচায় নিয়েছেন ৩ উইকেট, ব্যাট হাতে করেছেন ১৮ রান।

মূল দল ঘোষণা করা হলেও ২৩ মে পর্যন্ত খেলোয়াড় পরিবর্তনের সুযোগ থাকছে দলগুলোর সামনে। সে সময়ের আগে সুস্থ হয়ে উঠতে না পারলে কপাল পুড়তে পারে সাইফউদ্দিনের। আর দ্বিতীয় বিশ্বকাপ খেলতে না পারার যে আক্ষেপে পুড়ে কেঁদেছিলেন তাসকিন, কে জানে হয়তো সাইফউদ্দিনের এই চোটই ভুলিয়ে দিতে পারে তাসকিনের সেই আক্ষেপ!

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত