শিশু তোফা মণি ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিশু তোফা মণি (৭) ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় আরসাদুল নামের একজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সোমবার দুুপুরে চট্টগ্রামের আদালত এ আদেশ দেন।

২০১৬ সালের ২১ ডিসেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তোফা মণি (৭) নামে এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়। হত্যার পর উপজেলার মাছিহাতা ইউনিয়নের কাসাইট গ্রাম থেকে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত তোফা মণি কাসাইট গ্রামের মাওলানা শফিকুল ইসলামের মেয়ে। সে স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, কাসাইট গ্রামে একটি ইসলামী মহাসম্মেলন (মাহফিল) চলছিল। সন্ধ্যায় তোফা সেখানে যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়। রাত সাড়ে ৮টার দিকে তোফা স্থানীয় একটি মুদি দোকান থেকে চকলেট কেনার পর দোকানি তোফাকে বাড়ি চলে যেতে বলেন।

এরপর থেকে পরিবারের লোকজন তোফাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার কোনো সন্ধান পায়নি। পরে বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি বেগুন ক্ষেতে স্থানীয়রা তোফার মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। সদর মডেল থানা পুলিশের এসআই নারায়ণচন্দ্র দাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ওই শিশুর লাশ পাওয়া গেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে শিশুটিকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত