দেশে ফিরেই ভারতের লোকসভা নির্বাচন প্রসঙ্গে যা বললেন ফেরদৌস

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের প্রচারণায় অংশ নেয়ায় ভারতজুড়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক ফেরদৌস আহমেদকে নিয়ে। ইতোমধ্যে মডেল কোড অব কন্ডাক্ট ভাঙার অভিযোগে ভারতীয় ভিসা বাতিল হয়েছে তার।

এদিকে শেষ খবর পাওয়া অবধি, কলকাতার নেতাজি সুভাষচন্দ্র আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিজি-০৯৬ ফ্লাইটে স্থানীয় সময় রাত ৯টায় ফেরদৌস ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন। ঢাকায় অবতরণ করেন ১০টায়। বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের অফিস সূত্রে জানা গেছে এ খবর। আরও জানা গেছে, নির্ধারিত সফর শেষে আজই ঢাকায় ফেরার কথা ছিল ফেরদৌসের। তিনি সেভাবেই রাতে বিমান বাংলাদেশের একটি ফ্লাইটে দেশে ফেরেন।

এ বিষয়ে ফেরদৌস বলেন, তিনি এই বাংলায় একাধিক সিনেমায় অভিনয় করেছেন, বাংলার প্রযোজক, পরিচালক বা অভিনেতা বন্ধুদের সাথে একটা সুমধুর সম্পর্কও রয়েছে। আর সেই সূত্র থেকেই তিনি ওই প্রচারণায় অংশ নিয়েছিলেন। তবে কলকাতায় যাওয়ার মূল কারণ হচ্ছে শুটিংয়ে অংশ নেয়ার জন্য, প্রচারণা নয়।

কিন্তু ফেরদৌসের ওই যুক্তিকে খুব একটা ভালভাবে নেয়নি বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশন। কমিশনের অভিমত এভাবে নির্বাচনী প্রচারণনায় অংশ নেওয়া যায় না। পরে ফেরদৌসও এই বিষয়টি বুঝতে পারেন। এরপরই উপ-হাইকমিশন থেকে ফেরদৌসকে বাংলাদেশে ফিরে যেতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ভারতের রায়গঞ্জের প্রার্থী কানাইয়া লালের হয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়েছিলেন ফেরদৌস। এই ইস্যুতে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে বিধিভঙ্গের অভিযোগে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করে বিজেপি। আর এই অভিযোগ গেছে দিল্লি পর্যন্ত। এরপর মডেল কোড অব কন্ডাক্ট ভাঙার অভিযোগে ভারতীয় ভিসা বাতিল করে তাকে দেশে ফিরতে বলে বাংলাদেশ হাইকমিশন।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত