প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক, ৫ সমঝোতা সই

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে একান্ত বৈঠক করেছেন সফররত ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে তাদের মধ্যে এই বৈঠক হয় বলে খবর দিয়েছে রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা বাসস।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একটি সূত্র জানায়, সকাল সাড়ে ১০টায় দু’দেশের প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে আনুষ্ঠানিক বৈঠক শুরু হয়।

আলোচনা পর্ব শেষে উভয়ের উপস্থিতিতে ঢাকা ও থিম্পুর মধ্যে পারস্পরিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট ৫টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়।

স্বাস্থ্য, কৃষি, জাহাজ চলাচল, পর্যটন এবং জনপ্রশাসন প্রশিক্ষণ বিষয়ে উভয় দেশের মধ্যে সহযোগিতা জোরদারে এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়।

এর আগে সকাল ১০টার কয়েক মিনিট আগে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আসেন। এ সময় টাইগার গেটে তাকে স্বাগত জানান শেখ হাসিনা।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে তিন দিনের সরকারি সফরে ডা. লোটে শেরিং গতকাল শুক্রবার ঢাকা আসেন।

রয়্যাল ভুটান এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ বিমান (ড্রুক এয়ার) ভুটানের প্রধানমন্ত্রী, তার স্ত্রী এবং সফরসঙ্গীদের নিয়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। সেখানে তাকে উদ্দেশ্য করে ১৯বার তোপধ্বনি, গার্ড অব অনার এবং পরে লাল গালিচা সংবর্ধনা দেয়া হয়।

বিমানবন্দর থেকে ভুটানের প্রধানমন্ত্রীকে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে তিনি সাভারে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। পরে তিনি ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতেও ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এদিকে, শনিবার সন্ধ্যায় ভুটানের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আয়োজিত নৈশভোজে যোগ দিবেন তিনি।

আগামীকাল রোববার বাংলা নববর্ষের প্রথম দিনে লোটে শেরিং রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সুরের ধারা আয়োজিত বর্ষবরণের সাংস্কৃতিক আয়োজনে যোগ দেবেন। একই দিনে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের সাবেক শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনীতে যোগ দিয়ে ভাষণ দিবেন তিনি। সফর শেষে ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর আগামী সোমবার সকালে ঢাকা ছাড়ার কথা রয়েছে।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত