নুসরাতের হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে ঢাবিতে ৪ শিক্ষার্থীর অবস্থান

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে ফেনীর সোনাগাজীর অগ্নিদগ্ধ মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির হত্যাকারীদের ফাঁসি দাবিতে অবস্থান নিয়েছে ৪ শিক্ষার্থী। বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে সেখানে অবস্থান নেন তারা। অবস্থানরতদের মধ্যে তিনজন ঢাকা বিশ্ববিদযালয়ের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী এবং একজন একটি বেসরকারি পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের শিক্ষার্থী।

তারা হলেন- ঢাবির ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সাজ্জাদ কাদির, আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটের আহমেদুল্লাহ সিয়াম, ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের রায়হান খান এবং সাইক পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের শিক্ষার্থী মোস্তফা কামাল।

তাদের হাতে থাকা প্ল্যাকার্ডে লেখা রয়েছে, ‘বোন নুসরাত হত্যার বিচার চাই’, ‘অধ্যক্ষসহ জড়িতদের ফাঁসি চাই’, ‘অন্যায়ের প্রতিবাদকারীকে হত্যা কেন?’, ‘রক্ষক যদি ভক্ষক হয়, আমাদের আস্থা কোথায়?’, ‘অন্যায়ের প্রতিবাদের ফল কি মৃত্যু?’, ‘কাল কার মৃত্যুর পালা?, আমার বোনের?’।

অবস্থানের বিষয়ে আহমেদুল্লাহ সিয়াম বলেন, একজন মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল যে ঘৃণ্য কাজ করেছে তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হতেই হবে। এই সময়েও মানুষ মানুষকে পুড়িয়ে মারতে পারে, এটা তো চিন্তাও করা যায় না। এই অপরাধের শাস্তি ফাঁসি ছাড়া অন্য কিছু হতে পারে না।

সাজ্জাদ কবির বলেন, নুসরাত জাহান রাফির মৃত্যুর খবর শুনে আমরা তাৎক্ষণিকভাবে এখানে অবস্থান নিয়েছি। নুসরাতের হত্যাকারীদের ফাঁসি দিতে হবে। এই দাবিতে আমাদের প্রতিবাদ চলবে। উল্লেখ্য, বুধবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মারা যায় অগ্নিদগ্ধ নুসরাত।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত