উইজডেনের সেরা হলেন বিরাট কোহলি

উইজডেন সাময়িকীতে লিডিং ক্রিকেটারের খেতাব জিতলেন বিরাট কোহলি। যেখানে পাঁচ বর্ষসেরা ক্রিকেটারের একজন ভারতীয় অধিনায়ক। এছাড়া উইজডেনের তালিকায় বাকি চার ক্রিকেটার হলেন জস বাটলার,স্যাম কারান, রবি বার্নস ও ইংল্যান্ডের নারী ক্রিকেটার ট্যামি বিউমোন্ট। এদিকে, নারীদের লিডিং ক্রিকেটারের পুরস্কারও জিতেছে ভারতের স্মৃতি মান্দানা।

মূলত ইংলিশ গ্রীষ্মের পারফরম্যান্সের ওপর ভিত্তি করেই বেছে নেওয়া হয় উইজডেনের বর্ষসেরা পাঁচ ক্রিকেটার। আর গত বছরের সেই পারফরম্যান্সেই প্রথমবারের মতো পাঁচ বর্ষসেরা ক্রিকেটারের একজন নির্বাচিত হলেন বিরাট কোহলি।

গেলো কয়েক বছর ধরেই স্বপ্নের মতো সময় কাটাচ্ছেন বিরাট কোহলি। যার ফল স্বরূপ,ক্রিকেটে শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রেখেছেন কোহলি। তাইতো দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের স্বীকৃতিটা কোহলিকে আবারও দিলো ক্রিকেটের বাইবেল খ্যাত উইজডেন ক্রিকেটার্স অ্যালামনাকে। টানা তৃতীয় বছরের মতো এমন স্বীকৃতি পেলেন ভারতীয় অধিনায়ক।

গত বছর ব্যাট হাতে একচ্ছত্র আধিপত্য দেখিয়েছেন বিরাট কোহলি। তার ব্যাট ছিল যেন রান মেশিন। ক্রিকেটের তিন ফরম্যাট মিলিয়ে ৬৮ দশমিক তিন সাত গড়ে করেন ২৭৩৫ রান। এ সময় ৩৭ ইনিংসে হাঁকিয়েছেন ১১টি সেঞ্চুরি। যার ৭টি এসেছে দক্ষিণ আফ্রিকা,ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে।

এদিকে, জস বাটলার ও স্যাম কারান ইংল্যান্ডের হয়ে গ্রীষ্মে দারুণ পারফর্ম করায় উইজডনের তালিকায় জায়গা করে নেন। রবি বার্নস কাউন্টিতে সারের নেতৃত্ব দিয়ে জিতেছেন চ্যাম্পিয়নশীপ। এছাড়া বিউমোন্ট ইংল্যান্ড নারী ক্রিকেট দলের হয়ে ধারাবাহিক পারফরম্যান্সের স্বীকৃতি পান।

অন্যদিকে, ভারতের নারী ক্রিকেটার স্মৃতি মন্দানা লিডিং ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছেন। ক্রিকেটে আধিপত্য বিস্তার করা মন্দানা ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে ছিলেন টপ স্কোরার। আর টানা দ্বিতীয় বছরের মতো লিডিং টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার মনোনীত হয়েছেন আফগান লেগ স্পিনার রশিদ খান।

এর আগে, ২০০৯ সালে প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে উইজডেনের বর্ষসেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছিলেন টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এরপর ২০১০ সালে উইজডেন সাময়িকীর চোখে বর্ষসেরা টেস্ট ক্রিকেটার নির্বাচিত হন তামিম ইকবাল।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত