প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহার পেলেন দেশের দীর্ঘ মানব জিন্নাত আলী

দেশের দীর্ঘ মানব জিন্নাত আলীকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ উপহার হিসেবে মেসার্স জিন্নাত আলী স্টোরের চাবি, বিক্রয়সামগ্রী ও দলিল হস্তান্তর করেছেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

মঙ্গলবার দুপরে জেলা প্রশাসক (ডিসি) প্রথমে জিন্নাত স্টোরের ফলক উন্মোচন করেন। পরে স্টোরের চাবি ও জমির দলিল হস্তান্তর করেন।

জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, জিন্নাত আলী দেশের সম্পদ। তার প্রতি সবার সুদৃষ্টি রয়েছে। তার উচ্চতা ৮ ফুট ৬ ইঞ্চি। তিনি বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মানুষ। সেই বিবেচনায় দোকানঘর নির্মাণ করা হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে জমি বন্দোবস্ত করে তাকে বাড়ি করে দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি একটি দোকান, দোকান পরিচালনার জন্য আর্থিক সাহায্য, তার চিকিৎসা ও জীবনযাত্রার জন্য অনুদান চেক প্রদান করা হয়েছে।

দীর্ঘ মানব জিন্নাত আলী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আমার (জিন্নাত) কৃতজ্ঞতার শেষ নেই। জেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমলের সহযোগিতায় প্রধানমন্ত্রী আমাকে যা দিয়েছেন- তা আমি জীবনে কল্পনাও করি নাই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, এমপি সাইমুম সরওয়ার কমল, জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন ও স্থানীয় সাংবাদিক মাঈনুদ্দিন খালেদের কাছে চিরঋণী হয়ে থাকব।

এদিকে দোকান বুঝিয়ে দেয়ার পর কক্সবাজার জেলা প্রশাসক প্রথম ক্রেতা হন দীর্ঘ মানব জিন্নাত আলী স্টোরের। জিন্নাত আলী জেলা প্রশাসককে ৫০০ টাকার মূল্যের বিভিন্ন পণ্য তুলে দেন। পরে জেলা প্রশাসক কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন, কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু মো. ইসমাঈল নোমান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. লুৎফুর রহমান।

বক্তব্য রাখেন রামুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) চাইথোয়াইহ্লা চৌধুরী, গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. আলমগীর, নবাগত ইনচার্জ নুরুল আবছার, গর্জনিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, সাংবাদিক মাঈনুদ্দিন খালেদ, স্থানীয় স্কুলের প্রধান শিক্ষক ছিদ্দিকুল আজাদ রাশেদ, ইউপি সদস্য নুরুল আলম, যুবলীগ সভাপতি নজরুল ইসলাম, সমাজসেবক সালাউদ্দীন চৌধুরী, শ্রমিকনেতা আবু তালেব প্রমুখ। এছাড়াও প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত