‘স্যালেন্ডার’ উচ্চারণে ধরা পড়লেন ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট

ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে মামলায় তদবির করতে এসে এক ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট গ্রেফতার হয়েছেন। গতকাল রোববার হাকিম মো: জাহিদুল কবিরের খাস কামরায় এ ঘটনা ঘটে। আটক ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেটের নাম মো: জুয়েল রানা। তিনি টাঙ্গাইল জেলার সদর থানার বিশাদ বেটকা মুন্সিপাড়ার আব্দুর রউফের ছেলে। জানা যায়, এদিন সকালে জুয়েল রানা নিজেকে ম্যাজিস্ট্রেট (সহকারী জজ) পরিচয় দিয়ে সিএমএম মো: জাহিদুল কবিরের সাথে সৌজন্য সাক্ষাতের জন্য আসেন। ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দেয়ায় সিএমএম তাকে খাস কামরায় সাক্ষাৎ দেন।

খাস কামরায় তিনি নিজেকে ১২তম জুডিশিয়াল সার্ভিস পরীক্ষায় নিয়োগের সুপারিশপ্রাপ্ত বলে জানান। একপর্যায়ে তিনি একটি মামলার একজন আসামির জামিনের বিষয়ে কথা বলতে শুরু করেন। সেখানে তিনি ‘সারেন্ডারের’ স্থানে ভুল ইংরেজি শব্দ ‘স্যালেন্ডার’ ব্যবহার করেন। এতে সন্দেহ হয় সিএমএম জাহিদুল কবিরের। তখন সিএমএম ওই ব্যক্তিকে কোন বিশ^বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করেছেন জানতে চাইলে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের কথা বলেন। এরপর ১২তম জুডিশিয়াল সার্ভিসের পরীক্ষার রোল জানতে চাইলে পকেট থেকে একটি পরীক্ষার প্রবেশপত্র বের করে দেন।

যেখানে রোল নম্বর ছিল ৮২০৩। রোল নম্বরটি যাচাই করে দেখা যায়, ওই রোল নম্বরের পরীক্ষার্থীর অন্য নাম।এক পর্যায়ে তিনি স্বীকার করেন, প্রতারণার জন্যই আব্দুল্লাহ আল নোমানের রোল নম্বর ব্যবহার করে সেখানে নিজের নাম, পিতার নাম ও ঠিকানা বসিয়েছেন। ওই ঘটনার পর সিএমএম আদালতের বিচারক ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট জুয়েল রানাকে কোতোয়ালি থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত