কেরোসিন ঢেলে মাদ্রাসাছাত্রীকে হত্যাচেষ্টা: জড়িত সবাইকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

ফেনীর সোনগাজী উপজেলায় গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়ার ঘটনায় দগ্ধ মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির খোঁজখবর নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত সেন লাল সেনকে ডেকে নুসরাতের খোঁজ-খবর নেন। একইসঙ্গে এ ঘটনায় জড়িত সবাইকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেন তিনি।

ডা. সামন্ত সাংবাদিকদের বলেন, দুপুর ১টার সময় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আমি দেখা করতে যাই। প্রধানমন্ত্রী প্রথমেই ফেনীর ছাত্রীর বিষয়ে খোঁজখবর নেন। বিস্তারিত শুনে উনি মর্মাহত ও উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি যতরকম সহযোগিতা লাগে দেওয়ার কথা বলেন। ডা. সামন্ত সেন বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমার সামনেই নির্দেশ দিয়েছেন, এই ঘটনায় যারা জড়িত তাদের সবাইকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করার।

গতকাল নুসরাত আলিম পরীক্ষায় অংশ নিতে ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসা কেন্দ্রে গেলে দুর্বৃত্তরা তাকে ছাদে ডেকে নিয়ে যায়। তারা ওই মাদ্রাসার অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে দেয়া শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলে নিতে বলে। এতে তিনি সে রাজি না হলে দুর্বৃত্তরা তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে তার শরীরের ৮০ শতাংশ পুড়ে যায়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন নুসরাতের বর্তমান অবস্থা আশঙ্কাজনক।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত