বিজিএমইএর প্রথম নারী সভাপতি হচ্ছেন রুবানা হক

তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রফতানিকারকদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএ পরিচালনা পর্ষদের ২০১৯-২০২১ মেয়াদের নির্বাচনে মোহাম্মদী গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুবানা হকের নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত পরিষদ-ফোরাম প্যানেলের ২৬ জন প্রার্থীর সবাই জয়ী হয়েছেন। কারওয়ানবাজারে বিজিএমইএ ভবনে শনিবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ হয়। ভোট গণনা শেষে রাত সাড়ে ৯টায় নির্বাচন কমিশনার জাহাঙ্গীর আলামিন ফল ঘোষণা করেন।

এর বাইরে সংগঠনের পরিচালনা পর্ষদে চট্টগ্রামের জন্য সংরক্ষিত নয়টি পদে একক প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। তারা সবাই সম্মিলিত পরিষদ-ফোরাম-এর সঙ্গে সম্পৃক্ত। বিজিএমইএ পরিচালনা পর্ষদের সব কয়টি পদই সম্মিলিত পরিষদ-ফোরাম প্যানেলের হওয়ায় এই প্যানেলের নেতৃত্বদানকারী রুবানা হক সংগঠনটির সভাপতি হওয়া এখন সময়ের ব্যাপার। রুবানা হক ঢাকা উত্তর সিটির প্রয়াত মেয়র ও বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি আনিসুল হকের স্ত্রী।

সম্মিলিত ফোরাম ও স্বাধীনতা পরিষদ নামে দুটি প্যানেল এবার বিজিএমইএ নির্বাচনে ২৬টি পরিচালক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। সংগঠনটিতে পরিচালকের মোট পদ ৩৫টি। এর মধ্যে ঢাকায় ২৬টি ও নয়টি চট্টগ্রামে।

চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালক পদে সবাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। ঢাকায় ২৬টি পদে পূর্ণ প্যানেল দেয় সম্মিলিত পরিষদ ফোরাম। এসব পদে স্বাধীনতা পরিষদের প্রার্থী ছিলেন ১৮ জন। সম্মিলিত পরিষদ ফোরামের নেতৃত্ব দেন মোহাম্মদী গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুবানা হক। অন্যদিকে স্বাধীনতা পরিষদের নেতৃত্ব দেন ডেনিম প্রসেসিং প্লান্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম। নির্বাচনে মোট ভোটার ছিলেন এক হাজার ৯৫৬ জন। নিয়ম অনুযায়ী, নির্বাচিত পরিচালকরা তাদের মধ্য থেকে একজনকে সভাপতি এবং ৭ জন সহসভাপতি নির্বাচিত করেন।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত