ট্রাক্টর চালিয়ে ভোট চাইছেন হেমা মালিনী

ভোটের মাঠে প্রায় প্রতিদিনই নতুন নতুন চমক দেখাচ্ছেন বলিউড অভিনেত্রী হেমা মালিনী। এক এক কেন্দ্রে এক এক রকম চমক। কোথাও হেলিকপ্টারে আবার কোথাও কাস্তে হাতে গমক্ষেতে।

তবে মথুরায় এসে দেখালেন নতুন চমক। এসব চমকের উদ্দেশ্য একটাই, ওরা যেন বোঝে হেমা তাদেরই লোক। ভোটের এ মোহিনী প্রচারে শুক্রবার রীতিমতো ট্রাক্টরে উঠে বসলেন তিনি।

সঙ্গীরা অবাক, কৃষক হতবাক! আর এ ছবিগুলো সব ভাইরাল হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। মথুরায় এই হাই ভোল্টেজ প্রচারে এক লাফে লাইমলাইটে চলে এসেছেন বিজেপির এই প্রার্থী।

দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে গিয়েছিলেন মথুরার গোবদর্ধন গ্রামে। সেখানে পৌঁছেই সোজা চলে যান গ্রামের মাঠে। কথা বলেন কৃষকদের সঙ্গে।

এরই এক ফাঁকে হঠাৎ এই কাণ্ড ঘটান হেমা- উঠে পড়েন ট্রাক্টরে। কিছুদূর চালানও। খবর এনডিটিভির।

তবে প্রচারমাঠে বারবার গরিব-দুঃখীর সঙ্গে একাত্ম হতে চাইলেও হেমার বাস্তব চিত্র পুরোপুরি উল্টো। কম করে হলেও ১০০ কোটি রুপি মূল্যের সম্পত্তির বিলাসী মালিকিন তিনি।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফা ভোটের মনোয়ন জমা পড়তেই বেরিয়ে এসেছে হেমার সম্পত্তির খতিয়ান। নির্বাচন কমিশনে দেয়া হলফনামায় জানিয়েছেন, তার মোট সম্পত্তি ১০১ কোটি টাকা।

বাংলো, গয়না, নগদ, সব মিলিয়ে এই পরিমাণ সম্পত্তির অধিকারী তিনি। তার মোট স্থাবর সম্পত্তির মূল্য ৬৬ কোটি টাকা। স্বামী ধর্মেন্দ্রর টাকার পরিমাণ ১২.৩০ কোটি বেড়ে যায় ২০১৪ সালের পর।

এমনই তথ্য জানানো হয়েছে হেমা মালিনীর দায়ের করা অ্যাফিডেভিটে। এই অ্যাফিডেভিটে স্পষ্ট জানানো হয়েছে, গত ৫ বছরে তিনি সব কর জমা করেছেন। হেমা ও তার স্বামী ধর্মেন্দ্রর মোট আয় ১০ কোটি টাকা হয়েছে।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত