বাগদাদিকে ধরিয়ে দিতে ২ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলার পুরস্কার ঘোষণা ইরাকের

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সশস্ত্র জঙ্গি সংগঠন আইএস প্রধান আবু বকর আল বাগদাদিকে ধরিয়ে দিতে ২ কোটি ৫০ লাখ মার্কিন ডলার পুরস্কার ঘোষণা করেছে ইরাক। আনবার প্রদেশের রাজধানী রামাদিতে এই ঘোষণা সম্বলিত লিফলেট ছড়িয়েছে ইরাকেবর সেনাবাহিনী। ইব্রাহিম আল আওসাজ নামে প্রদেশটির এক কর্মকর্তা চীনের বার্তা সংস্থা সিনহুয়াকে এই খবর জানিয়েছেন।

২০১৪ সালে ইরাক ও সিরিয়ার কিছু অংশ দখল করার পর বিশ্বের মুসলিমদের শাসক হিসেবে নিজেকে ঘোষণা করেন বাগদাদি। ধারণা করা হয়, আইএসের স্বঘোষিত খিলাফতের পতনের পর এখন তিনি ইরাক-সিরিয়া সীমান্তে আত্মগোপনে আছেন। লোকচক্ষুর অন্তরালে থাকা আইএস নেতা বাগদাদি ২০১৪ সালে একবারই নিজের ছবি তুলতে দিয়েছিলেন। বাগদাদি সম্পর্কে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রকমের গুজব উঠতে দেখা গেছে। কখনও দাবি করা হয়েছে তিনি মারা গেছেন,কখনও বলা হয়েছে তিনি ধরা পড়েছেন আবার কখনও দাবি করা হয়েছে বাগদাদি মারাত্মকভাবে আহত। কখনওবা সিরীয় বাহিনীর হাতে আটক হওয়া আবার কখনও তাকে বিষ খাইয়ে দেওয়ার গুজবও শোনা গেছে। ২০১৭ সালের জুনে বাগদাদির মৃত্যুর খবরকে ‘শতভাগ নিশ্চিত’ দাবি করেছিলেন রাশিয়ার কর্মকর্তারা। এর এক বছর এক অডিও বার্তা দিয়ে বাগদাদি জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি বেঁচে আছেন।

বাগদাদিকে ধরিয়ে দিতে পুরস্কার ঘোষণা করা লিফলেটে বলা হয়েছে, দায়েশ নেতা এবং তার যোদ্ধারা আপনাদের ভূমি চুরি করেছে, মানুষ হত্যা করেছে। এখন সে তার পরিকল্পিত ধ্বংস ও মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচতে লুকিয়ে আছে। গোয়েন্দা তথ্য দিয়ে এখন আপনারা প্রতিশোধ নিতে পারেন।

মার্কিন সমর্থিত সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্স পূর্বাঞ্চলীয় সিরিয়ায় আইএসকে পরাজিত করার ঘোষণা দেওয়ার কয়েক দিনের মাথায় বাগদাদিকে ধরিয়ে দেওয়ার পুরস্কার ঘোষণা করলো। ধারণা করা হচ্ছে পূর্ব সিরিয়ায় পরাজয়ের পর বাগদাদি নিজের সঙ্গীদের নিয়ে ওই এলাকা থেকে পালিয়েছে।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত