ভোটে জিততে হিন্দু ধর্ম পরিবর্তন করে মুসলিম হলেন বলিউড অভিনেত্রী উর্মিলা

ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে লড়ছেন বলিউডের দর্শক নন্দিত অভিনেত্রী উর্মিলা মাতন্ডকর। মুম্বাই উত্তর কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী হয়েছেন তিনি। নির্বাচনে জয়ী হবার জন্য জোর প্রচারণাও চালাচ্ছেন তিনি। শোনা যাচ্ছে ইতোমধ্যে অভিনেত্রী নিজের ধর্মই পরিবর্তন করেছেন। তাহলে কি নির্বাচনে জয়ী হওয়ার জন্য উর্মিলা নিজের হিন্দু ধর্ম পরিবর্তন করে ইসলাম গ্রহণ করলেন?

তবে অনেকেই ধারণা করছেন উর্মিলা সত্যি সত্যি এমন কোনো কাজ করেননি। কেউ হয়তো শত্রুতা করে এমন কাজ করে থাকতে পারেন। তবে এর আগে পরিবার ও পরিচয় নিয়ে নানা তির্যক মন্তব্যের মুখে পড়তে হয়েছে এই অভিনেত্রীকে।

উর্মিলার স্বামী কাশ্মীরি মডেল ও ব্যবসায়ী মোহসিন আখতর মীর। স্বামীর পরিচয়ের জন্য এর আগে একাধিক বার কটাক্ষের মুখের পড়েছেন উর্মিলা। সমালোচকরা নিন্দার ভাষায় সমালোচনা করেছেন অভিনেত্রীর। এবার উইকিপিডিয়ায় উর্মিলার নাম বদলে কে বা কারা মরিয়ম আখতার মীর করে দিয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, মোহসিনের সঙ্গে বিবাহের পর ধর্ম বদলে মুসলিম হয়েছেন তিনি। বদলেছেন নিজের নামও। উর্মিলা থেকে হয়েছেন মরিয়ম।

তবে এই কাণ্ডে ভীষণ চটেছে উর্মিলার পরিবার। মহৎ উদ্দেশ্যে রাজনীতিতে নামা উর্মিকে নিয়ে কেন এতো নোংরামি করা হচ্ছে? এমন প্রশ্ন তুলেছে নায়িকার পরিবারের সদস্যরা। তাদের অভিযোগের আঙুল বিরোধী দল বিজেপির দিকে।

উর্মিলার পরিবারের দাবি, নির্বাচনে উর্মিলাকে হারাতে পারবে না বলেই তাদের এমন আচরণ। তবে পরিবারের পক্ষ থেকে উর্মিলাকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে নিন্দুকদের উদ্দেশ্যে পরিষ্কার জানানো হয়েছে এমন বাজে কাজ করে বা অন্য কিছু করেও নির্বাচন থেকে দুরে সরানো যাবে না উর্মিলাকে।

এদিকে এই ঘটনায় আনুষ্ঠানিকভাবে নিন্দা জানিয়েছে উর্মিলার দল কংগ্রেসও। দলটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, উর্মিলার জনপ্রিয়তায় ভয় পেয়েছে বিজেপি। যে কারণে এইসব অপপ্রচার চালাচ্ছে তারা। শুধু এবারই নয়, বিজেপি সবসময়ই সাম্প্রদায়িকতায় উস্কানি দেয়। তবে বিষয়টি নিয়ে এখনো মুখ খোলেননি অভিনেত্রী। তিনি নিজের মতো করেই চালিয়ে যাচ্ছেন নির্বাচনী প্রচার।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত