ট্যারেন্টের বিরুদ্ধে ৫০ জনকে হত্যার অভিযোগ

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ হামলায় অভিযুক্ত ব্রেন্টন ট্যারেন্টের বিরুদ্ধে ৫০ জনকে হত্যা ও ৩৯ জনকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ আনা হবে। পুলিশ জানিয়েছে, শুক্রবার ট্যারেন্টকে আদালতে হাজির করে এসব অভিযোগ দায়ের করা হবে। বার্তা সংস্থা এপি ও ইউএনবি এ তথ্য দিয়েছে।

গত ১৫ মার্চ শুক্রবারের জুমার নামাজের সময় ওই উগ্রবাদী শ্বেতাঙ্গ ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে ঢুকে মুসল্লিদের ওপর নির্বিচারে গুলি চালায়। এতে ৫০ জন নিহত ও অর্ধশতাধিক গুলিবিদ্ধ হন। নৃশংস ওই হত্যাকাণ্ডের দিনই প্রধান সন্দেহভাজন হিসেবে ২৮ বছর বয়সী অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ট্যারেন্টকে আটক করা হয়।

বিচারক বলেছেন, ‘আগামী শুক্রবার ট্যারেন্ট আত্মপক্ষ সমর্থন করতে পারবেন না। তবে তিনি নিজেকে উপস্থাপন করার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন।’

ক্রাইস্টচার্চ মসজিদে হামলার আসামিকে শুক্রবার দ্বিতীয়বার আদালতে হাজির করা হবে। এর আগে হামলার পরদিন ১৬ মার্চ তাকে ক্রাইস্টচার্চ জেলা আদালতে হাজির করা হয়। সে সময় তাকে হত্যার অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়েছিল। পুলিশ তার বিরুদ্ধে আরো অভিযোগ দাখিলের পরিকল্পনা করেছে।

গত ১৫ মার্চ টেস্ট খেলার জন্য ক্রাইস্টচার্চেই অবস্থান করছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। জুমার নামাজ আদায়ের জন্য ওই মসজিদেই রওনা দেন তামিম-মুশফিকরা। তবে পথেই এক নারী তাঁদের সাবধান করে দেন। পরে ক্রিকেটাররা দ্রুত হোটেলে ফিরে যান।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত