ভালেন্সিয়ার মাঠে হারল রিয়াল মাদ্রিদ

দ্বিতীয় মেয়াদে ফেরা কোচ জিনেদিন জিদানের অধীনে টানা দুই জয়ে শুরুটা ভালোই হয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদের। তবে মৌসুম জুড়ে বারবার খেই হারানো দলটি ছন্দ ধরে রাখতে পারলো না। ভালেন্সিয়ার মাঠে নিজেদের মেলে ধরতে ব্যর্থ হয়ে হেরে গেছে মাদ্রিদের দলটি।

প্রতিপক্ষের মাঠে লা লিগায় বুধবার রাতে ২-১ গোলে হারে রিয়াল। ডিসেম্বরে লিগের প্রথম পর্বে সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে দলটিকে ২-০ গোলে হারিয়েছিল তারা।

প্রথমার্ধে বল দখলে অনেকটাই এগিয়ে ছিল রিয়াল। তবে তাদের আক্রমণগুলোয় ছিল না পরিকল্পনার ছাপ। বিরতির আগে উল্লেখযোগ্য কোনো আক্রমণও করতে পারেনি তারা।

উল্টো ৩৫তম মিনিটে রক্ষণের ব্যর্থতায় গোল খেয়ে বসে অতিথিরা। কর্নার থেকে উড়ে আসা বল কেইলর নাভাস পাঞ্চ করে ফেরালে পেয়ে যান গনসালো গেদিস। সতীর্থের সঙ্গে একবার বল দেওয়া নেওয়ার ফাঁকে ডি-বক্সে ঢুকেই জোরালো শটে কাছের পোস্ট দিয়ে জাল খুঁজে নেন পর্তুগিজ মিডফিল্ডার গেদিস।

গোল খেয়ে যেন আরও ছন্নছাড়া হয়ে পড়ে রিয়াল। উজ্জীবিত স্বাগতিকরা একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে। তবে প্রথমার্ধের শেষ দিকে তাদের সহজ দুটি সুযোগ নষ্ট হলে বিরতির আগে ব্যবধান আর বাড়েনি।

দ্বিতীয়ার্ধেও নিজেদের ছন্দ খুঁজে ফেরে প্রতিযোগিতার সফলতম দলটি। ৫১তম মিনিটে প্রথম কর্নার পায় তারা, তবে তাতে প্রতিপক্ষের কোনো পরীক্ষায় নিতে পারেনি রিয়াল।৭৫তম মিনিটে দারুণ এক প্রতি-আক্রমণে ব্যবধান দ্বিগুণ করার সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছিল ভালেন্সিয়া। কিন্তু ছোট ডি-বক্সে বল পেয়ে ঠিকমতো শট নিতে পারেননি দেনিস চেরিশেভ। পরে গামেইরোর ফ্লিক ঠেকিয়ে দেন নাভাস।

৮৩তম মিনিটে আর প্রতিপক্ষকে আটকে রাখতে পারেনি রিয়াল। আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার এসেকিয়েল গারাইয়ের কর্নারে হেডে পোস্ট ঘেঁষে বল জালে জড়ান স্প্যানিশ মিডফিল্ডার দানিয়েল পারেহো।

যোগ করা সময়ের শেষ মিনিটে লুকা মদ্রিচের কর্নারে হেডে ব্যবধান কমান করিম বেনজেমা। তবে সমতা টানার চেষ্টা করার মতো সময় আর ছিল না তাদের। আসরে নবম হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিয়াল।

৩০ ম্যাচে ১৮ জয় ও তিন ড্রয়ে তৃতীয় স্থানে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট ৫৭।

মঙ্গলবার রাতে ভিয়ারিয়ালের মাঠে ৪-৪ গোলে ড্র করা বার্সেলোনা ৭০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা আতলেতিকো মাদ্রিদের পয়েন্ট ৬২।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত