ইরাকে ৪ হাজার বছরের পুরনো শহরের সন্ধান

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরাকের কুর্দিস্তানে হারিয়ে যাওয়া এক প্রাচীন শহরের ধ্বংসাবশেষের   পেয়েছে ফরাসি প্রত্নতাত্ত্বিকদের একটি দল। ফ্রান্সের ন্যাশনাল সেন্টার ফর সায়েন্টিফিক রিসার্স (সিএনআরএস) জার্নালের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জার্নালের বরাত দিয়ে ফক্সনিউজ জানিয়েছে, মেসোপটেমিয়ান সাম্রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলে সীমান্তঘেঁষা প্রাচীন এই শহরটি প্রাচীন পাহাড়ি সম্প্রদায়ের (যারা লুল্লুবি নামে পরিচিত) কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। শহরটিতে খননকাজ করার পর বড় আকারের পাথরের ভিত বেরিয়ে এসেছে। গবেষকদের ধারণা, এসব পাথর খ্রিস্টপূর্ব ২২০০ সালের। এছাড়া শহরটিতে পাওয়া শিলালিপি দেখে ধারণা করা হচ্ছে, সেখানকার বাসিন্দারা কৃষিকাজের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

প্রত্নতাত্ত্বিকদের ধারণা, শহরটি প্রায় চার হাজার বছর আগে আগুনে পুড়ে ধ্বংস হয় গিয়েছিল। প্রাচীণ এ শহরের নাম কী ছিল তা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি প্রত্নতাত্ত্বিকেরা। শহরটিতে আরও খননকাজ বাকি রয়েছে।

২০১২ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে ছয় দফা খননকাজ শেষে জাগ্রোস পর্বতমালার কাছাকাছি প্রাচীন এ শহরের ধ্বংসাবশেষের খোঁজ পান গবেষকরা। এর আগে প্রত্নতাত্ত্বিকেরা আধুনিক সুলায়মানিয়াহ শহরের কাছাকাছি এই পুরনো শহরটির সন্ধানে যান। তবে সেসময় ইরাকে চলমান যুদ্ধের কারণে তাদের খননকাজ বাধাগ্রস্ত হয়।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত