তুমুল বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করেছেন আলজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট

তুমুল বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করেছেন আলজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট আবদেল আজিজ বুতেফলিকা। ২০ বছর দেশটি প্রেসিডেন্ট ছিলেন তিনি। রাজনৈতিক সংস্কার ও জবাবদিহিতার দাবিতে দেশটির মানুষ তাঁর বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তোলে।

রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এপিএস নিউজ-এ প্রকাশিত এক চিঠিতে গতকাল মঙ্গলবার পদত্যাগের কথা জানান ৮২ বছর বয়স্ক আবদেল আজিজ।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, সেনাবাহিনী চাপের কারণে তিনি ২০ বছর ধরে আকঁড়ে রাখা পদ থেকে সরে যেতে বাধ্য হয়েছেন তিনি। বুতেফলিকার পদত্যাগের ঘোষণার পর রাজধানী আলজিয়ার্সে উল্লাসের ফেটে পড়েন দেশটির জনগণ।

১৯৯০ এর দশকে আলজেরিয়ার গৃহযুদ্ধের পর সেনাবাহিনীর সমর্থনে ক্ষমতায় আসেন প্রেসিডেন্ট আবদেল আজিজ বুতেফলিকা। তাঁর পদত্যাগের দাবিতে সম্প্রতি গণ বিক্ষোভ শুরু হয়। আর এই বিক্ষোভের কারণে তিনি পঞ্চমবারের মতো নির্বাচনে লড়ার প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নিতে বাধ্য হন।

প্রেসিডেন্টের পদত্যাগের খবরে উল্লাসে ফেটে পড়ে আলজেরিয়ার মানুষ। ছবি : সংগৃহীত

দেশটির সেনাবাহিনীর লে. জেনারেল আহমেদ গায়েদ সালাহ বলেন, ‘সময় নষ্ট করার আর কোনো সুযোগ নাই।’

সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীরা খবরটি শুনে রাস্তায় রাস্তায় আনন্দ প্রকাশ করছেন। দেশটির জাতীয় পতাকা উড়িয়ে আর গান গেয়ে তারা উৎসব করে।

সালমু সিদ্দিক নামে এক ব্যক্তি বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে বলেন, ‘আমরা এখন শতভাগ গণতন্ত্রের দিকে যাব। এটা খুবই গুরুত্বপূর্ন। আগের শাসকদের সরিয়ে দেওয়াটা খুব প্রয়োজন ছিল।

দেশটির সংবিধান অনুযায়ী সিনেটের স্পিকার এখন অন্তবর্তীকালীন সরকারের দায়িত্ব নেবেন। নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন সরকার না আসা পর্যন্ত তিনি ওই দায়িত্ব পালন করবেন।

গত ফেব্রুয়ারি মাস থেকেই আবদেল আজিজের বিরুদ্ধে আন্দোলন দানা বাঁধতে থাকে। এরই প্রেক্ষিতে আসন্ন নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার ঘোষণাও দিয়েছিলেন তিনি।

১৯৯৯ সালের ২৭ এপ্রিল দেশটির প্রেসিডেন্ট হয়েছিলেন আবদেল আজিজ।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত