পারিবারিক ঝগড়ার জেরে সবজি কাটার ছুরি দিয়ে স্বামীর গো’পনাঙ্গ কাটল স্ত্রী

পারিবারিক ঝগড়ার জেরে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কাটল স্ত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের তেলেঙ্গানার রাজধানী হায়দরাবাদের এল বি নগর এলাকায়। বুধবার অভিযুক্ত সন্তোষী সিংয়ের নামে অভিযোগ দায়ের হলেও এখনও পর্যন্ত তাকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, মাত্র ১০ দিন আগে রাজস্থান থেকে কাজের সন্ধানে স্ত্রী সন্তোষী (২৪) ও দুই শিশু সন্তানকে নিয়ে হায়দরাবাদে এসেছিলেন শের সিং (২৬)।

তারপর এল বি নগরের একটি মার্বেল কারখানায় কাজও করছিলেন। গত শনিবার রাতে মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফেরার পর সামান্য পারিবারিক বিষয় নিয়ে স্ত্রী সন্তোষীর সঙ্গে ঝগড়া শুরু হয় শের সিংয়ের। ঝগড়ার মাঝে স্বামীর ব্যবহারে অসন্তুষ্ট হয়ে সবজি কাটার ছুরি দিয়ে শের সিংয়ের পুরুষাঙ্গ কেটে নেয় সন্তোষী। এর পর সঙ্গে সঙ্গে অচেতন হয়ে পড়েন শের। পরে প্রতিবেশীদের কাছ থেকে খবর পেয়ে তাঁকে নিয়ে গিয়ে ওসমানিয়া হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। বর্তমানে তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে।

এ প্রসঙ্গে এল বি নগর থানার ইন্সপেক্টর ভি অশোক রেড্ডি বলেন, শনিবার রাতে দুই সন্তান যখন ঘুমোচ্ছে তখন মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফেরেন শের সিং। তারপর সামান্য বিষয় নিয়ে স্ত্রী সন্তোষীর সঙ্গে তাঁর ঝগড়া শুরু হয়। সেসময় রাগের বসে হঠাত্‍ ছুরি দিয়ে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে নেয় সন্তোষী। বর্তমানে ওসমানিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি আছেন শের সিং।

অভিযুক্ত সন্তোষীর নামে তাঁর স্বামীর অভিযোগের ভিত্তিতে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩২৭ নম্বর ধারা অনুযায়ী মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে তাকে গ্রেপ্তার না করে স্বামী শের সিংয়ের দেখাশোনার জন্য ওসমানিয়া হাসপতালে রাখা হয়েছে। স্বামী সুস্থ হয়ে ছাড়া পেলেই তাকে গ্রেপ্তার করা হবে।

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত