সপ্তাহে দুটির বেশি ডিমে অকাল মৃত্যুর ঝুঁকি !

প্রতিদিন ডিম খাওয়া উচিত নাকি উচিত নয়? বিষয়টি নিয়ে আছে বিতর্ক। তবে সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় বলা হয়েছে সপ্তাহে যারা তিনটি অথবা তার বেশি ডিম খান অথবা প্রতিদিন ৩০০ মিলিগ্রামের বেশি ডায়েটারি কোলেস্টেরল গ্রহণ করেন, তাদের হৃদপিণ্ডের সমস্যায় ভোগার এবং অকালে মৃত্যুবরণ করার ঝুঁকি অনেক বেড়ে যায়।

গবেষণাটির মূল গবেষক হলেন শিকাগোর নর্থওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি ফেইনবার্গ স্কুল অব মেডিসিন এর পোস্টডক্টোরিয়াল ফেলো ভিকটর ঝং। তিনি বলেন, ‘ডিম, বিশেষ করে কুসুম হলো ডায়েটারি কোলেস্টেরলের অন্যতম উৎস।’ শুক্রবার মেডিকেল জার্নাল ‘জেএএমএ’তে প্রকাশ পেয়েছে গবেষণাটি। ঝং এবং তার সহকর্মীদের করা এই গবেষণায় জানানো হয়েছে যে একটি বড় আকৃতির ডিমে ১৮৬ মিলিগ্রাম কোলেস্টেরল থাকে।

গবেষকরা ছয়টি স্টাডি গ্রুপের থেকে তথ্য সংগ্রহ করেছে। সেখানে ২৯০০০ মানুষের সাড়ে ১৭ বছরের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। দেখা গেছে যারা প্রতিদিন ৩০০ মিলিগ্রামের বেশি ডায়েটারি কোলেস্টেরল গ্রহণ করেছেন, তাদের অন্যদের তুলনায় হৃদপিণ্ডের রোগ এর ঝুঁকি ৩.২% বেশি এবং অকাল মৃত্যুর ঝুঁকি ৪.৪% বেশি।

তবে গবেষকরা এটাও জানিয়েছেন যে, হৃদপিণ্ডের সমস্যা এবং অকাল মৃত্যুর ঝুঁকি বেড়ে যাওয়ার সঙ্গে ধূমপান, অস্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণ, ব্যায়াম না করা ইত্যাদি বিষয়গুলোও জড়িত। আবার শরীরের জন্যও ডিম প্রয়োজন। তাই গবেষকরা পরামর্শ দিয়েছেন, ডিম খেলে সারাদিনের অন্য খাবারের কোলেস্টেরল ব্যালেন্স করতে হবে। সেই সঙ্গে নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে। সিএনএন

পাঠকের মতামত