হামলার ২ মিনিট আগে মসজিদে হামলাকারী জঙ্গির ইশতেহারটি হাতে পাই: নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আরডান বলেছেন, শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসীর কাছ থেকে তার অফিস একটি ইশতেহার পেয়েছে। শুক্রবার মসজিদে হামলার কয়েক মিনিট আগেই তারা সেটি হাতে পেয়েছিলেন।-খবর এএফপি

জুমার নামাজের সময় ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে ওই হামলায় অর্ধশত মুসল্লিকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে।

রোববার সাংবাদিকদের তিনি বলেন, যে ৩০ ব্যক্তি ওই ইশতেহার পেয়েছেন, তাদের মধ্যে তিনি একজন। হামলার অন্তত ৯ মিনিট আগে তার কাছেই ওই জঙ্গি ইশতেহারটি মেইল করেছিলেন।

তিনি বলেন, এতে স্থানের কথা উল্লেখ করা হয়নি। সুনির্দিষ্টভাবে বিস্তারিত তথ্যও দেয়া হয়নি। এটি গ্রহণের দুই মিনিটের মাথায় তা নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে পাঠানো হয়েছিল।

বন্দুকধারী শ্বেতাঙ্গ জঙ্গি যখন গণহত্যার জন্য নিউজিল্যান্ডের মসজিদে প্রবেশ করেন, তখন তার হেলেমেটে রাখা লাইভ ক্যামেরার ভিডিওর ব্যাকগ্রাউন্ডে সার্ব জাতীয়তাবাদী গান শোনা গেছে। হত্যার সময় তিনি এ নারকীয় হত্যার দৃশ্য সামাজিক মাধ্যমে ফেসবুকে সরাসরি সম্প্রচার করেন।

শ্বেতাঙ্গ জঙ্গির অস্ত্রের গায়ে সার্ব জাতীয়তাবাদের ঐতিহাসিক ব্যক্তিদের নাম খোদাই করা ছিল। এতে বলকান সহিংসতা নিয়ে অপ্রত্যাশিত আগ্রহ তৈরি হয়েছে। যুদ্ধবিধ্বস্ত অঞ্চলটিতে যখন রক্তের বন্যা বয়ে যাচ্ছিল।

দুটি মসজিদে এই অস্ট্রেলীয় সন্ত্রাসী গুলি করে অর্ধশত লোককে হত্যার পরে নিউজিল্যান্ডে বসনীয় রাষ্ট্রদূত স্থানীয় টেলিভিশনে গিয়ে হত্যার ব্যাকগ্রাউন্ড দৃশ্যে সঙ্গীত নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

মসজিদে ঢুকে এই শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসী যখন একেবার এক লোককে হত্যা করছিলেন, তখন ভিডিওর অন্তরালে সার্ব জাতীয়তাবাদী সঙ্গীত বাজছিল।

বসনীয় রাষ্ট্রদূত বলেন, এটা সার্বীয় জাতীয়তাবাদী সঙ্গীত, যাতে যুদ্ধাপরাধী রাদোভান কারাদজিচের নাম উল্লেখ রয়েছে।

পাঠকের মতামত