মসজিদে হামলায় হতাহতের সহযোগিতায় গঠিত তহবিলে জমা ৩৩ কোটি টাকা

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে বর্বর হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আহতদের চিকিৎসা ও নিহতদের পরিবারকে সহযোগিতার জন্য এক দিনের মধ্যেই ৪০ লাখ মার্কিন ডলার (সাড়ে ৩৩ কোটি টাকারও বেশি) অর্থ সংগ্রহ করেছে স্থানীয় কয়েকটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। ঘটনার পরই স্থানীয় দুটি গ্রুপ তহবিল সংগ্রহ শুরু করেছে।

তারা বলছে, অর্থের বিনিময়ে কোনভাবেই স্বজনহারাদের দুঃখ লাঘব করা সম্ভব নয়। তবে আমরা চাই সামান্য হলেও আহত ও নিহতদের পরিবারের পাশে দাড়াতে। আর এই মহান কাজে অংশ নিতে তারা আহ্বান জানিয়েছে সকলকে। মানুষও ব্যাপকবাবে সাড়া দিয়েছে এই আহ্বানে।

নিউজিল্যান্ডের ইংরেজী সংবাদ মাধ্যম দ্য স্টাফ জানিয়েছে, ‘গিভএলিটল’ নামের একটি ওয়েবসাইট সংগ্রহ করেছে ২৭ লাখ মার্কিন ডলার। স্থানীয় সময় শনিবার মধ্যরাত পর্যন্ত এই তহবিলে সহযোগিতা করেছে ৪০ হাজারের বেশি মানুষ। ২০০৮ সালে প্রতিষ্ঠিত এই ওয়েবসাইটটি বিভিন্ন মানবিক ইস্যুতে তহবিল সংগ্রহের কাজ করে।

এভরি ডে হিরো নামের আরেকটি প্রতিষ্ঠানের আহ্বানে সাড়া দিয়েছেন অনেকেই। এই প্রতিষ্ঠানটি সংগ্রহ করেছে ৯০ হাজার মার্কিন ডলার। এই ওয়েবসাইটটি একদমই নতুন। ‘গিভএলিটল’ সাইটে অনুদান প্রদানকারীদের চাপ এত বেশি ছিলো যে, সাইটে কারিগরি ত্রুটি দেখা দেয়, এরপরই এই সাইটটি খোলা হয়।

দুটি ওয়েবসাইটই একই সংস্থার। সংস্থাটির নাম এনজেড কাউন্সিল অব ভিকটিম সাপোর্ট গ্রুপস। এটি দেশটির সরকারের একটি সহেযোগি প্রতিষ্ঠান। এছাড়া ‘লাঞ্চগুড’ নামের একটি ওয়েবসাইট সংগ্রহ করেছে ১৩ লাখ মার্কিন ডলার। হতাহতদের মাঝে এই অর্থ বন্টন করা হবে স্থানীয় মুসলিমদের সংগঠন নিউজিল্যান্ড ইসলামিক ইনফরমেশন সেন্টারের মাধ্যমে। তারা এক বিবৃতিতে বলেছে, যে স্বজনরা হারিয়ে গেছে, কোন অঙ্কের অর্থই আর তাদের ফিরিয়ে দিতে পারবে না। আমরা শুধু তাদের দুঃখের সামান্য অংশীদার হতে চাই’।

পাঠকের মতামত