নিউজিল্যান্ডে মসজিদের পাশে বন্দুক হামলায় নিহত ২৭, নিরাপদে বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ এলাকায় একটি মসজিদের পাশে ২ বন্দুকধারীর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে ২৭ জন নিহত হয়েছে বলে দাবি করা হলেও নিরাপত্তা বাহিনী এখনো পর্যন্ত এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেনি। তবে বিবিসির সিইও নিজাম উদ্দিন চৌধুরী জানিয়েছেন,

দেশটিতে অবস্থানরত বাংলাদেশি খেলোয়াড়রা নিরাপদে আছেন বলে তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানিয়েছেন। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়েরা ক্রাইস্টচার্চে হ্যাগলি ওভাল মাঠে অনুশীলন করছিলেন। অনুশীলন শেষে তারা মসজিদটিতে জুমার নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন। খেলোয়াড়রা সেখানে গিয়ে শুনতে পান মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে।

ক্রাইস্টচার্চ এলাকায় অবস্থিত মসজিদের পাশে হামলার ঘটনায় এলাকাটিতে কড়া সতর্কতা জারি করা হয়েছে।স্থানীয় বাসিন্দাদের এলাকাটি এড়িয়ে চলতে এবং পার্শ্ববর্তী সকল স্কুল বন্ধ রাখতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে শুক্রবার জানিয়েছেন পুলিশ কমিশনার মাইক বুশ।

স্থানীয় সময় শুক্রবার দুপুরের দিকে ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি পার্কে অবস্থিত আল-নুর মসজিদ এলাকায় বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটে। সেখানে একজন বন্দুকধারীর সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর গোলাগুলি হয়েছে। তাতে গুলিবিদ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৭ জন নিহত হয়েছে বলে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর বরাতে যমুনা টিভি দাবি করলেও দেশটির পুলিশ তা এখনো নিশ্চিত করেনি।

খেলোয়াড়রা ক্রাইস্টচার্চের একটি মসজিদের নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন তবে তারা গুলির শব্দ শুনে নিরাপদে ফিরে গেছেন বলে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের একজন কোচ জানিয়েছেন। এবং খেলোয়াড় তামিম ইকবাল টুইটারে জানিয়েছেন যে, সবাই এখন নিরাপদে আছেন। আগামীকালে নির্দিষ্ট খেলাটির ব্যাপারে পরে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে।

মুশফিকুর রহিম তার ফেসবুকে জানিয়েছেন যে হামলার সময় তারা খুবই কাছাকাছি ছিলেন। তিনি বলেন, ‘আমরা খুবই ভাগ্যবান। সর্বশক্তিমান আল্লাহ আমাদের রক্ষা করেছেন। আবারও এধরনের অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে চাই না। আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

প্রিয় পাঠক, আপনার মূল্যবান শেয়ার / মতামতের এর জন্য ধন্যবাদ।

পাঠকের মতামত